মঙ্গলবার, ৩১ জানুয়ারী ২০২৩, ০৬:২৬ পূর্বাহ্ন
বিশেষ ঘোষণাঃ
• করোনাভাইরাস প্রতিরোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন, টিকা নিন। • গুজব নয়, সঠিক সংবাদ জানুন। • দেশের কিছু জেলা, উপজেলা, গুরুত্বপূর্ণ স্থান এবং বিশ্বের কয়েকটি দেশের গুরুত্বপূর্ণ শহরে (খালি থাকা সাপেক্ষে) প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। • আপনি কি কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে 'ফিল্ম ও মিডিয়া, গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা' বিষয়ে পড়ছেন? বাংলাদেশ প্রতিবেদন আপনাকে দিচ্ছে 'ইন্টার্নশিপ'-এর সুযোগ। • আপনিও হতে পারেন সাংবাদিক! চলতি পথে নানা অসঙ্গতি, দুর্নীতি, কারো সফলতা বা যেকোনো ভিন্নধর্মী খবর (ছবি অথবা ভিডিও) পাঠাতে পারেন। • হটলাইনঃ +৮৮০ ১৯ ০৯ ৮৬ ২৬ ১৬ (হোয়াটসঅ্যাপ), • ই-মেইলঃ protibedonbd@gmail.com • গুগল, ফেসবুক ও ইউটিউবে আমাদের পেতে Bangladesh Protibedon লিখে সার্চ দিন।

বীর মুক্তিযোদ্ধাদের ডিজিটাল সার্টিফিকেট ও স্মার্ট কার্ড বিতরণ

বাংলাদেশ প্রতিবেদন
প্রকাশকালঃ সোমবার, ২৮ নভেম্বর, ২০২২

এম এ আশরাফ, ভোলাঃ ভোলার দৌলতখান উপজেলায় বীর মুক্তিযোদ্ধাদের ডিজিটাল সার্টিফিকেট ও স্মার্ট কার্ড বিতরণ করা হয়েছে।

সোমবার (২৮ নভেম্বর) সকাল ১১টায় উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে আনুষ্ঠানিকভাবে ডিজিটাল সার্টিফিকেট ও স্মার্ট কার্ড বিতরণ করে ভোলা-২ আসনের সাংসদ আলী আজম মুকুল এমপি।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার (অঃদঃ) মোঃ তৌহিদুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন ভোলা-২ আসনের সাংসদ আলী আজম মুকুল এমপি। বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান মনজুর আলম খান, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ছিদ্দিক মিয়া, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আঃ রাজ্জাক শশী, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন জাহাঙ্গীর, পৌর মেয়র জাকির হোসেন তালুকদার, থানা অফিসার ইনচার্জ জাকির হোসেন, উপজেল আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক গোলাম নবী নবু, সাংগঠনিক সম্পাদক ও হাজীপুর ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব হামিদুর রহমান টিপু সহ যুবলীগ, শ্রমিকলীগ ও বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তাগণ।

অনুষ্ঠানে উপজেলার কমান্ডারসহ সর্বস্তরের বীর মুক্তিযোদ্ধাদের হাতে ডিজিটাল সার্টিফিকেট ও স্মার্ট কার্ড তুলে দেন প্রধান অতিথি।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে এমপি মুকুল বলেন, বীর মুক্তিযোদ্ধারা দেশ ও জাতির শ্রেষ্ঠ সম্পদ। তাদের প্রাণের বিনিময়ে আমরা স্বাধীন রাষ্ট্র পেয়েছি। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বীর মুক্তিযোদ্ধাদের কল্যাণে বিভিন্ন কর্মসূচি নিয়েছেন। বর্তমান সরকার বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মানী ভাতা বৃদ্ধি, রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফনসহ বিভিন্ন সম্মাননা ও সুযোগ সৃষ্টি করেছেন। স্বাধীনতার ৫০ বছর পরেও মুজিব শতবর্ষে আজ তাদের ডিজিটাল সার্টিফিকেট ও স্মার্ট কার্ড বিতরণ করার মধ্যে দিয়ে সম্মানিত করা হচ্ছে। পৃথিবীর যেকোনো রাষ্ট্রে মুক্তিযোদ্ধাদের এই কার্ডের মাধ্যমে সুবিধা দেওয়া হবে। এ সার্টিফিকেট ও আইডি কার্ড মুক্তিযোদ্ধাদের মূল্যায়ন ও সুযোগ-সুবিধা আরও বৃদ্ধি করেছে। আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আছে বলেই এটা সম্ভব হয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ