মঙ্গলবার, ৩১ জানুয়ারী ২০২৩, ০৭:১৬ পূর্বাহ্ন
বিশেষ ঘোষণাঃ
• করোনাভাইরাস প্রতিরোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন, টিকা নিন। • গুজব নয়, সঠিক সংবাদ জানুন। • দেশের কিছু জেলা, উপজেলা, গুরুত্বপূর্ণ স্থান এবং বিশ্বের কয়েকটি দেশের গুরুত্বপূর্ণ শহরে (খালি থাকা সাপেক্ষে) প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। • আপনি কি কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে 'ফিল্ম ও মিডিয়া, গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা' বিষয়ে পড়ছেন? বাংলাদেশ প্রতিবেদন আপনাকে দিচ্ছে 'ইন্টার্নশিপ'-এর সুযোগ। • আপনিও হতে পারেন সাংবাদিক! চলতি পথে নানা অসঙ্গতি, দুর্নীতি, কারো সফলতা বা যেকোনো ভিন্নধর্মী খবর (ছবি অথবা ভিডিও) পাঠাতে পারেন। • হটলাইনঃ +৮৮০ ১৯ ০৯ ৮৬ ২৬ ১৬ (হোয়াটসঅ্যাপ), • ই-মেইলঃ protibedonbd@gmail.com • গুগল, ফেসবুক ও ইউটিউবে আমাদের পেতে Bangladesh Protibedon লিখে সার্চ দিন।

সাংবাদিকের মামলায় মেম্বারের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারী পরোয়ানা

বাংলাদেশ প্রতিবেদন
প্রকাশকালঃ বুধবার, ১৬ নভেম্বর, ২০২২

শাহজাহান চৌধুরী শাহীন, কক্সবাজার।।

কক্সবাজারের কুতুবদিয়ায় দুই সাংবাদিকের উপর হামলার ঘটনায় দায়েরকৃত মামলার প্রধান আসামী মেম্বার মোশারফ হোসেনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছে আদালত। এরআগে তিনি এই মামলায় অস্থায়ী জামিন নিয়ে পলাতক হন।
বুধবার (১৬ নভেম্বর) আদালতের বিজ্ঞ বিচারক মোহাম্মদ সাঈদীন নাঁহী’ তার জামিন বাতিল করে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে বাদীর পক্ষের আইনজীবি এড. ফিরোজ আহমদ জানান, সাংবাদিক শাহেদুল ইসলাম মনির দায়ের করা মামলায় ১৬ নভেম্বর হাজিরার ধার্যদিন ছিল। কিন্তু মেম্বার মোশারফ হোছাইন আদালতে অনুপস্থিত হওয়ায় বিজ্ঞ আদালত অস্থায়ী জামিন বাতিল করে তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারি করেছেন।

জানা গেছে, গত ২০ অক্টোবর আলী আকবর ডেইলের শান্তি বাজার এলাকার মেম্বার মোশারফ হোছাইন গং তার প্রতিপক্ষের সাথে লবণের মাঠ নিয়ে বিরোধ চলছিল। বিরোধের জেরে দুই পক্ষের মুখোমুখি অবস্থানের খবর পেয়ে সাংবাদিকরা সংবাদ সংগ্রহে করতে গেলে মেম্বার মোশারফের নেতৃত্বে তার সাথে থাকা সন্ত্রাসীরা দুই সাংবাদিকের উপর হামলা চালায়। এতে দৈনিক যায়যায়দিনের প্রতিনিধি সাংবাদিক শাহেদুল ইসলাম মনির আহত হয় এবং তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

পরবর্তীতে এ নিয়ে সাংবাদিক শাহেদুল ইসলাম মনির বাদী হয়ে কুতুবদিয়া থানায় মামলা দায়ের করেন। প্রাথমিকভাবে আদালত কর্তৃক অস্থায়ী জামিন পেয়ে ফের বেপরোয়া হয়ে উঠে মোশারফ মেম্বার। যার ফল ৭ নভেম্বর একই এলাকায় প্রকাশ্য দিবালোকে স্থানীয় লবণ চাষিদের উপর ফিল্মী কায়দায় সশস্ত্র হামলা চালায় মোশারফ মেম্বার ও তাঁর সন্ত্রাসীবাহিনী। এ হামলায় নারীসহ পাঁচজন আহত হয়। এ ঘটনায় চাষি মীর কাদের বাদী হয়ে আরও একটি মামলা দায়ের করেন (যার মামলা নং ১০৫/২২)।
এ মামলায়ও অন্যান্য আসামিরা জামিন পেলেও মেম্বার মোশারফ পলাতক রয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ