শনিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২৩, ১২:০৯ পূর্বাহ্ন
বিশেষ ঘোষণাঃ
• করোনাভাইরাস প্রতিরোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন, টিকা নিন। • গুজব নয়, সঠিক সংবাদ জানুন। • দেশের কিছু জেলা, উপজেলা, গুরুত্বপূর্ণ স্থান এবং বিশ্বের কয়েকটি দেশের গুরুত্বপূর্ণ শহরে (খালি থাকা সাপেক্ষে) প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। • আপনি কি কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে 'ফিল্ম ও মিডিয়া, গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা' বিষয়ে পড়ছেন? বাংলাদেশ প্রতিবেদন আপনাকে দিচ্ছে 'ইন্টার্নশিপ'-এর সুযোগ। • আপনিও হতে পারেন সাংবাদিক! চলতি পথে নানা অসঙ্গতি, দুর্নীতি, কারো সফলতা বা যেকোনো ভিন্নধর্মী খবর (ছবি অথবা ভিডিও) পাঠাতে পারেন। • হটলাইনঃ +৮৮০ ১৯ ০৯ ৮৬ ২৬ ১৬ (হোয়াটসঅ্যাপ), • ই-মেইলঃ protibedonbd@gmail.com • গুগল, ফেসবুক ও ইউটিউবে আমাদের পেতে Bangladesh Protibedon লিখে সার্চ দিন।

ঝিলংজা ইউনিয়ন আ. লীগ সম্মেলন নিয়ে বিরোধ : আড়াই ঘন্টা সড়ক অবরোধ

বাংলাদেশ প্রতিবেদন
প্রকাশকালঃ শনিবার, ১২ নভেম্বর, ২০২২

শাহজাহান চৌধুরী শাহীন, স্টাফ রিপোর্টার।।

কক্সবাজার সদর উপজেলার ঝিংলজা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন ও কাউন্সিলর স্থগিত করার ইস্যু নিয়ে। দীর্ঘ আড়াই ঘন্টা চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়ক অবরোধ করেন দলের বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা।
শনিবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে রাত সাড়ে ৮ টা পর্যন্ত আড়াই ঘণ্টা চলে এ অবরোধ।
এতে মহাসড়কে উভয় পাশে শতশত যানবাহন আটকে পড়ায় সাধারণ যাত্রী এবং পর্যটকরা চরম দুর্ভোগ পড়ে। পরে কক্সবাজার সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কায়সারুল হক জুয়েলের মধ্যস্থতায় অবরোধ তুলে নেওয়া হয় বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা।
দলীয় নেতা কর্মী সুত্রে জানা গেছে, কক্সবাজার সদর উপজেলার ঝিংলজা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলন ও কাউন্সিল হাজীপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে শনিবার বিকেল ৩টায় শুরু হয়। বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে সম্মেলনের প্রথম অধিবেশন শেষ হয়। মাগরিবের পর হাজী পাড়ায় সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় তলায় দ্বিতীয় অধিবেশন প্রস্তুতি নেয়া হয়।
এতে উপস্থিত ছিলেন কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও পৌর মেয়র মুজিবুর রহমানসহ সাংগঠনিক টীমের নেতৃবৃন্দ।
কাউন্সিল শুরু হলে আওয়ামী লীগের কাউন্সিলর তালিকা নিয়ে অভিযোগ তুলেন একপক্ষ। এতে কাউন্সিল স্থগিত ঘোষণা করে সম্মেলনস্থল থেকে সরে আসেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান।
এসময় বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠেন কাউন্সিলরসহ আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের সাধারণ নেতাকর্মীরা। সন্ধ্যা ৬ টার দিকে বিক্ষুদ্ধরা পাওয়ার হাউসস্থ হাজিপাড়া এলাকায় কক্সবাজার- চট্টগ্রাম মহাসড়ক অবরোধ করে কাউন্সিলের দাবী জানিয়ে বিভিন্ন শ্লোগান দেয়। অবরোধে সড়কের উভয় পাশে সব ধরনের যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। দূরপাল্লার বাসসহ শত শত যানবাহন আটকা পড়ায় যাত্রীসহ পথচারীরা চরম দূর্ভোগে পড়েন। একই সময় চকরিয়া ও রামুসহ বিভিন্ন স্থানে আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা সড়ক অবরোধ করে বলে জানা যায়।
রাত ৮ টায় জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক টীমের সদস্যরা, কক্সবাজার সদর মডেল থানার ওসি রফিকুল ইসলাম, কক্সবাজার সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কায়সারুল হক জুয়েল, ঝিলংজা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান টিপু সুলতানসহ আওয়ামী লীগের নেতা কর্মীদের সাথে সমঝোতা বৈঠক বসে।
এব্যাপারে কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ এবং সাংগঠনিক টীমের সদস্য মাহবুবুল হক মুকুল বলেন, যথানিয়মে সম্মেলন পরবর্তী কাউন্সিলের প্রস্তুতি নেয়া হয়। ওই সময় মিজানুর রহমান হেলাল নামের এক প্রার্থীর অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে কাউন্সিল স্থগিত করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। পরে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আল মাহমুদ স্বপন সহ জেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দের সঙ্গে কথা হয়েছে। আশা করছি বিষয়টি দ্রুত সুরাহা করে পুনরায় কাউন্সিল আয়োজন করা হবে ।

ঝিলংজা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি সরওয়ার আলম বলেন, সম্মেলন ও কাউন্সিল নিয়ে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সর্বশেষ বর্ধিত সভায় সবার সম্মতিক্রমে কাউন্সিলর তালিকা অনুমোদিত হয়। পদপ্রত্যাশীদের প্রতীক বরাদ্দ ও কাউন্সিলের জন্য নেয়া হয়। যথারীতি আমরা প্রার্থীরা পোস্টার, ব্যানার ও ফেস্টুন ছাপিয়ে প্রচার, প্রচারণ করেছি। কিন্তু শেষ মুহূর্তে এসে কাউন্সিল অধিবেশনের সময় এক প্রার্থী তালিকা নিয়ে অভিযোগ তুলেন। এতে অন্যান্য প্রার্থী, নেতাকর্মী ও কাউন্সিলররা বিক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন।
পরে কক্সবাজার সদর মডেল থানার ওসি রফিকুল ইসলামের অনুরোধে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কায়সারুল হক জুয়েলের মধ্যস্থতায় সড়ক থেকে অবরোধ তুলে নেওয়া হয়।
কক্সবাজার সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রফিকুল ইসলাম বলেন, বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীদের সঙ্গে কথা বলে রাত সাড়ে ৮ টার সময় সড়ক অবরোধ তুলে নেন বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মী।
কক্সবাজার সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা সেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক কায়সারুল হক জুয়েল বলেন, কাউন্সিলর এবং আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের সর্বাত্মক অংশগ্রহণে উৎসব মুখর পরিবেশে চলছিল ঝিলংজা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন। দ্বিতীয় অধিবেশনে কাউন্সিল সম্পন্নের প্রস্তুতি শুরু হতে না-হতেই কক্সবাজার সভাপতি প্রার্থী মিজানুর রহমান হেলালের অযৌক্তিক অভিযোগে আচমকা ব্যালেট নিয়ে চলে যান মুজিবুর রহমান। এতে দলের বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মী এবং কাউন্সিলররা সড়ক অবরোধ করে রাখে। পরে বিষয়টি জানতে পেরে পর্যটক এবং সাধারণ যাত্রীদের কথা ভেবে দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীর সঙ্গে কথা বলে সড়ক অবরোধ তুলে নেওয়া হয়।
গণতান্ত্রিকপন্থায় দ্রুত কাউন্সিল অনুষ্ঠান করে সঠিক নেতৃত্ব নির্বাচন করার দাবী জানান তিনি।
ঝিলংজা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহবায়ক, টিপু সুলতান বলেন, আত্নীয়করণ করতেই ঝিলংজা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন পরবর্তী কাউন্সিল বানচাল করা হয়েছে। এ ঘটনায় দুঃখপ্রকাশ করে তিনি আরও বলেন, সংগঠিত ঘটনায় কাউন্সিলর এবং আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের স্বাধীনতা খর্ব করা হয়েছে। তিনি অবিলম্বে সঠিক পন্থায় কাউন্সিল অনুষ্ঠানের মাধ্যমে নেতৃত্ব নির্বাচনের দাবি করেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ