বৃহস্পতিবার, ১১ অগাস্ট ২০২২, ১২:১০ অপরাহ্ন
বিশেষ ঘোষণাঃ
• করোনাভাইরাস প্রতিরোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন, টিকা নিন। • গুজব নয়, সঠিক সংবাদ জানুন। • দেশের কিছু জেলা, উপজেলা, গুরুত্বপূর্ণ স্থান এবং বিশ্বের কয়েকটি দেশের গুরুত্বপূর্ণ শহরে (খালি থাকা সাপেক্ষে) প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। • আপনি কি কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে 'ফিল্ম ও মিডিয়া, গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা' বিষয়ে পড়ছেন? বাংলাদেশ প্রতিবেদন আপনাকে দিচ্ছে 'ইন্টার্নশিপ'-এর সুযোগ। • আপনিও হতে পারেন সাংবাদিক! চলতি পথে নানা অসঙ্গতি, দুর্নীতি, কারো সফলতা বা যেকোনো ভিন্নধর্মী খবর (ছবি অথবা ভিডিও) পাঠাতে পারেন। • হটলাইনঃ +৮৮০ ১৯ ০৯ ৮৬ ২৬ ১৬ (হোয়াটসঅ্যাপ), • ই-মেইলঃ protibedonbd@gmail.com • গুগল, ফেসবুক ও ইউটিউবে আমাদের পেতে Bangladesh Protibedon লিখে সার্চ দিন।

তাহিরপুরে ত্রান সহায়তা প্রার্থী সাথে চেয়ারম্যানের দূব্যবহার,অনিয়ম দূর্নীতির অভিযোগ

বাংলাদেশ প্রতিবেদন
প্রকাশকালঃ মঙ্গলবার, ২ আগস্ট, ২০২২

তাহিরপুরে ত্রান সহায়তা প্রার্থী সাথে চেয়ারম্যানের দূব্যবহার,অনিয়ম দূর্নীতির অভিযোগ।

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি:

বন্যায় ত্রান সহায়তা প্রার্থীর সাথে চরম দূব্যবহার করা সহ ব্যাপক অনিয়ম ও দুর্নীতি অভিযোগ উঠেছে ইউনুস আলী চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে।

তিনি সুনামগঞ্জ জেলার তাহিরপুর উপজেলার দক্ষিণ বড়দল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান।
তার বিরুদ্ধে গতকাল(০১আগষ্ট) সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসকে নিকট অভিযোগ দিয়েছেন নালের বন্ধ গ্রামের বাসিন্দা কালাম মিয়া।
লিখিত অভিযোগ তিনি উল্লেখ করেন,গত ১৬ই জুন ভয়াবহ বন্যায় চরম ক্ষতির শিকার হন। কিন্তু কোন ধরনের সহায়তা পান নি। বিশিষ্ট দানবির ফরাজ করিমের দেয়া ঢেউ টিন,বাঁশ বিতরণের তালিকায় নাম থাকলেও চেয়ারম্যান তাকে না দিয়ে চরম দূব্যবহার করেন। আমি থাকে ভোট না দেয়ায় আমার ঢেউটিন ও বাঁশ আত্মসাৎ করেছেন। এছাড়াও বলেন,জানিশনা পুরান খালাশ গ্রামের ইসলাম মেম্বারের ছেলেসহ কয়েকজন চেয়ারম্যানের অনিয়মের প্রতিবাদ করায় মেরে পিঠিয়ে কি হাল করছি। এছাড়াও একতা বাজারে চেয়ারম্যান নিজস্ব অফিসে হলহলিয়া গ্রামের আব্দুল নূরকে ও নোয়া গাজীর ছেলে মুন্নাকে মারধর করে হাতপা ভেঙে দেশ ছাড়া করবে বলে। ৮নং ওয়াড সদস্য হারুন মিয়াকে প্রকাশ্যে চেয়ারম্যান লাঞ্ছিত করে। বন্যার সময় ক্ষতি গ্রস্থ পরিবারের জন্য তিনশত প্যাকেট শুকনো খাবার আসলে তিনি আত্মসাৎ করেছেন। বন্যায় ক্ষতি গ্রস্থদের দশ হাজার টাকা বিতরণেও মনগড়া ভাবে বিতরন করেছেন কিন্তু কেউ মুখ খোলতে সাহস পায় নি।

অভিযোগের বিষয়ে দক্ষিণ বড়দল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ইউনুস আলী সাথে যোগাযোগ করা সম্ভব না হওয়ায় বক্তব্য নেয়া যায় নি।
অভিযোগকারী কালাম জানান,আমি গরীব ও অসহায় মানুষ আমার চরম দূব্যবহার ও চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে অনিয়মের বিষয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা জন্য দাবী জানাই।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ