বৃহস্পতিবার, ১১ অগাস্ট ২০২২, ১১:১০ পূর্বাহ্ন
বিশেষ ঘোষণাঃ
• করোনাভাইরাস প্রতিরোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন, টিকা নিন। • গুজব নয়, সঠিক সংবাদ জানুন। • দেশের কিছু জেলা, উপজেলা, গুরুত্বপূর্ণ স্থান এবং বিশ্বের কয়েকটি দেশের গুরুত্বপূর্ণ শহরে (খালি থাকা সাপেক্ষে) প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। • আপনি কি কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে 'ফিল্ম ও মিডিয়া, গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা' বিষয়ে পড়ছেন? বাংলাদেশ প্রতিবেদন আপনাকে দিচ্ছে 'ইন্টার্নশিপ'-এর সুযোগ। • আপনিও হতে পারেন সাংবাদিক! চলতি পথে নানা অসঙ্গতি, দুর্নীতি, কারো সফলতা বা যেকোনো ভিন্নধর্মী খবর (ছবি অথবা ভিডিও) পাঠাতে পারেন। • হটলাইনঃ +৮৮০ ১৯ ০৯ ৮৬ ২৬ ১৬ (হোয়াটসঅ্যাপ), • ই-মেইলঃ protibedonbd@gmail.com • গুগল, ফেসবুক ও ইউটিউবে আমাদের পেতে Bangladesh Protibedon লিখে সার্চ দিন।

আখাউড়ায় অনুমোদনহীন আইসক্রিম ফ্যাক্টরিতে জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত

বাংলাদেশ প্রতিবেদন
প্রকাশকালঃ সোমবার, ১ আগস্ট, ২০২২

আখাউড়ায় অনুমোদনহীন আইসক্রিম ফ্যাক্টরিতে জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

মোবারক হোসেন জীবন/আখাউড়া,ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি:

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় একটি ফ্যাক্টরিতে ভেজালবিরোধী অভিযান চালিয়ে দেড় লাখ টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।রোববার রাত ১০টার দিকে পৌরশহরের অংকুর কিন্টার গার্ডেন সংলগ্ন মসজিদপাড়ায় এ অভিযান পরিচালনা করেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট প্রশান্ত চক্রবর্তী।

মূলত এটা বরফ কারখানা। বাইরে থেকে ও ভেতরে গিয়েও এমন দৃশ্য চোখে পড়ে। বরফ কারখানাটির ভেতরে গিয়ে সন্দেহজনকভাকে ড্রাম খুলে দেখা যায় এতে রং ভর্তি। এসব রং একেবারে সাধারণ মানের এবং খাদ্য হিসেবে খুবই ক্ষতিকর।

তবে কারখানার ‘গোপন কক্ষে’ গিয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানসংশ্লিষ্টদের চোখ কপালে উঠে যায়। আইসক্রিম ফ্যাক্টরিতে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে ক্ষতিকারক ও মেয়াদবিহীন ফুড কালার, ভেজাল কেমিক্যাল, অন্য প্রতিষ্ঠানের নকল আইসক্রিম তৈরির লেবেলসহ বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগে অভিযান চালানো হয়। এ সময় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনে ফ্যাক্টরির মালিক নবী হোসেনকে (৫৫) দেড় লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। নবী হোসেন নরসিংদী জেলার রায়পুরা উপজেলার কালিকাপুর গ্রামের মুর্শিদ মিয়ার ছেলে।

আখাউড়া উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট প্রশান্ত চক্রবর্তী। জানান, এই কারখানার বরফ মাছ সংরক্ষণে কাজে লাগে। মাছ সংরক্ষণে যেন সমস্যা না হয় তাই কারখানাটি সিলগালা করা হয়নি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ