মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২, ০২:০৭ পূর্বাহ্ন
বিশেষ ঘোষণাঃ
• করোনাভাইরাস প্রতিরোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন, টিকা নিন। • গুজব নয়, সঠিক সংবাদ জানুন। • দেশের কিছু জেলা, উপজেলা, গুরুত্বপূর্ণ স্থান এবং বিশ্বের কয়েকটি দেশের গুরুত্বপূর্ণ শহরে (খালি থাকা সাপেক্ষে) প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। • আপনি কি কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে 'ফিল্ম ও মিডিয়া, গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা' বিষয়ে পড়ছেন? বাংলাদেশ প্রতিবেদন আপনাকে দিচ্ছে 'ইন্টার্নশিপ'-এর সুযোগ। • আপনিও হতে পারেন সাংবাদিক! চলতি পথে নানা অসঙ্গতি, দুর্নীতি, কারো সফলতা বা যেকোনো ভিন্নধর্মী খবর (ছবি অথবা ভিডিও) পাঠাতে পারেন। • হটলাইনঃ +৮৮০ ১৯ ০৯ ৮৬ ২৬ ১৬ (হোয়াটসঅ্যাপ), • ই-মেইলঃ protibedonbd@gmail.com • গুগল, ফেসবুক ও ইউটিউবে আমাদের পেতে Bangladesh Protibedon লিখে সার্চ দিন।

ইউনিয়ন যুবদল সহ-সভাপতি এখন উপজেলা আ.লীগ সদস্য : তৃনমূলে ক্ষোভ!

নিজস্ব বার্তা প্রতিবেদক
প্রকাশকালঃ মঙ্গলবার, ১০ মে, ২০২২

বিশেষ প্রতিবেদক, কক্সবাজার।।

কক্সবাজারের ঈদগাঁও ইসলামপুর ইউনিয়নের এক সময়ের জাতীয়তাবাদী যুবদল সহ-সভাপতি থেকে সরাসরি ঈদগাঁও উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মনোনীত হয়েছে এক ব্যক্তি। রাতারাতি উপজেলা আওয়ামী লীগের আহবায়ক কমিটিতে সদস্য পদ পাওয়া নিয়ে তৃণমূলে চলছে ব্যাপক আলোচনা -সমালোচনা।

ক্ষমতাসীন দলের কেন্দ্রীয় হাই কমান্ড থেকে বার বার অনুপ্রবেশকারীদের স্থান আওয়ামী লীগে হবে না বলে হুশিয়ারীর পরও ঈদগাঁওতে এই ঘটনা নিয়ে রাজনৈতিক মহলে বিতর্ক সৃষ্টি হয়েছে।

গত ১৭ মার্চ কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সম্পাদক স্বাক্ষরিত দলীয় প্যাডে ঈদগাঁও উপজেলা আওয়ামী লীগের হালনাগাদ আহবায়ক কমিটিতে ৪৩ নম্বরে স্থান পেয়েছে হাসান আলী নামের এই যুবদল নেতা। তিনি ২০১২ সালে ইসলামপুর ইউনিয়ন যুবদলের সহ-সভাপতির দায়িত্বে ছিলেন।
ওই সময়ে যুবদল কমিটির অনুমোদন দিয়েছিলেন তৎকালীন ঈদগাঁও সাংগঠনিক উপজেলা যুবদলের আহবায়ক মোহাম্মদ শাহজাহান, যুগ্ম আহবায়ক মামুন সিরাজুল মজিদ ও শফিকুর রহমান । ইউনিয়ন যুবদলের অনুমোদিত কমিটিতে তিন নাম্বার ক্রমিকে সহ-সভাপতির নামের পাশে লেখা আছে হাসান আলী, পিতা আলী হোসেন।
ইসলামপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের তৃনমূলের একাধিক নেতা দাবি করেন, হাসান আলী এক সময়ের যুবদল ক্যাডার হিসেবে সরকারি বিরোধী নানান কর্মকান্ডে লিপ্ত ছিলেন। যুদ্ধাপরাধীদের বিচার চলাকালীন সময়ে হরতাল অবরোধের মতো নাশকতা বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করার পিছনে তার অংশগ্রহণ ছিল চোখে পড়ার মত। হঠাৎ করে ঈদগাঁও উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মনোনীত হওয়ায় চরমভাবে হতাশ পুরো ইউনিয়নের নেতাকর্মীরা।এবিষয়ে তৃণমূলের নেতা-কর্মীরা কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের দপ্তর সেলে লিখিত অভিযোগ দায়ের করারও প্রক্রিয়া চালাচ্ছে বলে জানান গেছে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে ইসলামপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ওয়ার্ড পর্যায়ের এক নেতা জানান, হাসান আলী বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের শাসনামলে আওয়ামী পরিবারগুলোর ওপর নিরবে নির্যাতনসহ নানাভাবে হয়রানি করেছে। সেই হাসান আলীকে উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য করা হয়েছে। এটা কিছুতেই মেনে নেওয়া যায় না। এছাড়া তার ৩ ভাইপোর বিরুদ্ধে রয়েছে মাদক পাচার ব্যবসা,চুরি, ডাকাতি, ছিনতাইসহ রাষ্ট্র ও সমাজ বিরোধী কর্মকান্ডের অভিযোগ। তাদের বিরুদ্ধে থানায় অহরহ ইয়াবার মামলাও রয়েছে।

তার বড় ভাই হাকীম আলী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি ভাংচুর মামলার ২নং আসামী। কক্সবাজার সদর মডেল থানায় দ্রুত বিচার আইনে দায়ের কৃত মামলা নং–৩৫ , জিআর মামলা নং- ৯৫১/১৪ এর ২ নং আসামী হচ্ছে হাকীম আলী। তার বিরুদ্ধে কক্সবাজার সদর থানার মানলা নং-২৫, জিআর নং-২১৫/১৫ রয়েছে।

মুলত তাদের রক্ষা করতে হাসান আলী মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে সদস্য পদ ভাগিয়ে নিয়েছেন বলেন জানান তৃণমূলে এ কর্মী।
তিনি আরও বলেন,“যারা জেল, জুলুম, হুলিয়া মাথায় নিয়ে পালিয়ে থাকতে হয়েছে, নানা নির্যাতনের শিকার হয়েছে, দলের দুঃ সময়ে রাজপথে থেকেছেন; এসব ত্যাগী ও পরীক্ষিত অনেক নেতাদের বাদ দেওয়া হয়েছে। নতুন আহবায়ক কমিটিতে বিএনপি-জামায়াত নেতা-কর্মীদের স্থান দেওয়া হয়েছে।
অভিযোগ রয়েছে, ২০০৭ সালে আতিক এন্টারপ্রাইজ নামের এক প্রতিষ্ঠানের নাম দিয়ে তৎকালীন বিএনপি নেতাদের সহযোগিতায় সার পাচার করতে তার নিজস্ব একটি কার্গো ভোট ধরা পড়ে। ওই সময়ে তার বিরুদ্ধে কক্সবাজার সদর থানায় বিশেষ ক্ষমতা আইনের মামলা রুজু করা হয়। কক্সবাজার থানার মামলা নং- ৬, জিআর নং-৩৭/০৭, ধারা ২৫-এ, ১৯৭৪ সালের বিশেষ ক্ষমতা আইন।
এ বিষয়ে জানতে কয়েকবার মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হয় হাসান আলীর সঙ্গে। কিন্তু মোবাইলে সংযোগ না পাওয়ায় বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি। পরবর্তীতে পাওয়া গেলে তার বক্তব্য গুরুত্ব সহকারে ছাপানো হবে।

তৎককালীন ইসলামপুর ইউনিয়ন যুবদলের সাধারণ সম্পাদক সাবেক মেম্বার নুরুল আজিম বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, হাসান আলী তার দায়িত্ব পালনকালে উক্ত কমিটিতে ২নং সহ-সভাপতি ছিলেন। তিনি এখন আওয়ামী লীগে যোগদান করেছে। তবে রাজনৈতিক দল পরিবর্তন করা ওই ব্যক্তির নিজস্ব ব্যাপার।

স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা জানান, হাসান আলীর বড় ভাই মনজুর আলম চেয়ারম্যান ইসলামপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের আমৃত্যু সভাপতি ছিলেন। তার মৃত্যুর পর আওয়ামী রাজনীতিতে রাতারাতি ঢুকে পড়ে যুবদলের সহ-সভাপতি হাসান আলী।
এবিষয়ে জানতে চাইলে ঈদগাঁও উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহবায়ক ইমরুল হাসান রাশেদ চেয়ারম্যান বলেন, হাসান আলীর বিষয়ে সমালোচনা হচ্ছে এটা সত্য।জেলা আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে তার বিষয়ে জানানো হয়েছে। কমিটি অনুমোদনের প্রথম থেকে জোরালো আপত্তি তোলা হয়েছিল তার বিরুদ্ধে ,সে অতীতে কোন রাজনৈতিক দলের সঙ্গে ছিল তা জানা নেই। তবে কারা, কিভাবে তাকে আওয়ামী লীগের আহবায়ক কমিটির সদস্য করেছে সেটিও আমি জানি না।
ঈদগাঁও উপজেলা আওয়ামী লীগের মনোনীত এক সদস্য বলেন, এটা বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের গঠনতন্ত্র বিরোধী। অন্য কোনো দল থেকে এসেই আওয়ামী লীগের সদস্য পদ পাওয়ার কোনো সুযোগ নাই। নয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের পরবর্তী সভায় এ বিষয়ে জোরালো ভাবে সাংগঠনিক টিমের সামনে উপস্থাপন করা হবে বলে জানান তিনি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ