শনিবার, ২৮ মে ২০২২, ০১:৪৭ পূর্বাহ্ন
বিশেষ ঘোষণাঃ
• করোনাভাইরাস প্রতিরোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন, টিকা নিন। • গুজব নয়, সঠিক সংবাদ জানুন। • দেশের কিছু জেলা, উপজেলা, গুরুত্বপূর্ণ স্থান এবং বিশ্বের কয়েকটি দেশের গুরুত্বপূর্ণ শহরে (খালি থাকা সাপেক্ষে) প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। • আপনি কি কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে 'ফিল্ম ও মিডিয়া, গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা' বিষয়ে পড়ছেন? বাংলাদেশ প্রতিবেদন আপনাকে দিচ্ছে 'ইন্টার্নশিপ'-এর সুযোগ। • আপনিও হতে পারেন সাংবাদিক! চলতি পথে নানা অসঙ্গতি, দুর্নীতি, কারো সফলতা বা যেকোনো ভিন্নধর্মী খবর (ছবি অথবা ভিডিও) পাঠাতে পারেন। • হটলাইনঃ +৮৮০ ১৯ ০৯ ৮৬ ২৬ ১৬ (হোয়াটসঅ্যাপ), • ই-মেইলঃ protibedonbd@gmail.com • গুগল, ফেসবুক ও ইউটিউবে আমাদের পেতে Bangladesh Protibedon লিখে সার্চ দিন।

ভোমরা সিএন্ডএফ’র নির্বাচন: ভোটের ব্যবস্থা করে দিলে কোটি টাকা, বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতার জন্য দর উঠছেই

নিজস্ব বার্তা প্রতিবেদক
প্রকাশকালঃ সোমবার, ৯ মে, ২০২২

ভোমরা সিএন্ডএফ’র নির্বাচন: ভোটের ব্যবস্থা করে দিলে কোটি টাকা, বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতার জন্য দর উঠছেই।

আব্দুর রহিম/সাতক্ষীরা জেলা প্রতিনিধি :

সাতক্ষীরার ভোমরা সিএন্ডএফ এজেন্ট এসোসিয়েশনের ত্রিবার্ষিক নির্বাচনে ভারতীয় মাফিয়ারা বিভিন্নমুখি তৎপরতা অব্যাহত রেখেছে। সবাইকে মনোনয়নপত্র কেনার সুযোগ দিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বীতাপূর্ণ নির্বাচনের ব্যবস্থা করলে খাজাবাবাকে কোটি টাকার অফার দেওয়া হয়েছে। গত ৭ মে পর্যন্ত এই রেট ছিল ৫০ লাখ টাকা।

তবে গতকাল আকর্ষিক এই রেট দ্বিগুন হয়ে যায়। অপরদিকে ৯টি পদে শুধুমাত্র নয় জনের মনোনয়নের ব্যবস্থা করে দিলে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদ প্রত্যাশীদের মধ্যে চলছে দর তোলার প্রতিযোগিতা। সেক্ষেত্রে শেষ পর্যন্ত গোপন নিলামে ভোমরা স্থল বন্দর সিএন্ডএফ এজেন্ট এসোসিয়েশনের ৯টি পদ কত টাকায় বিক্রি হবে সেটা নিশ্চিত হতে আজ সোমবার পর্যন্ত সময় লাগতে পারে। বন্দর সংশ্লিষ্ঠ একাধিক ব্যবসায়ী এসব তথ্য নিশ্চিত করেছে। তবে কেউ তাদের পরিচয় প্রকাশ করতে রাজি হননি।

সূত্রমতে গত বছর জুলাইয়ের পর থেকে ভোমরা স্থল বন্দরের উপর নজর পড়ে ভারতের সীমান্ত এলাকার মাফিয়া চক্রের। ঐ চক্র প্রতিদিন ভারতের ঘোজাডাঙ্গা স্থল বন্দরে সিরিয়ালের নামে ট্রাক প্রতি ৩০ হাজার টাকা আদায় করা শুরু করে। অন্যথায় সিরিয়ালের জন্য কৌশলে প্রতিটি ট্রাককে ১৫ দিন থেকে ৪৫ দিন পর্যন্ত আটকিয়ে রাখার ব্যবস্থা করা হয়। দীর্ঘদিন মালামালসহ বন্দরে আটকে থাকার পরিবর্তে টাকা দিয়েই ব্যবসায়ীরা দিনে দিনে ট্রাকগুলি ভোমরায় প্রবেশের ব্যবস্থা করে। ফলে এই কালো টাকা ভোমরা স্থল বন্দরের নিয়ন্ত্রকের ভূমিকা পালনের সুযোগ পায়।

গত বছর সেপ্টেম্বর মাসে ভোমরা স্থল বন্দর সিএন্ডএফ এজেন্ট এসোসিয়েশনের নির্বাচনের তফশীল ঘোষণা করা হয়। এসময় নির্বাচন ছাড়াই কমিটি গঠনের জন্য দেড় কোটি টাকা লেনদেনের খবর ছড়িয়ে পড়ে। বিভিন্ন পত্রপত্রিকায় এনিয়ে খবরও প্রকাশিত হয়। তারপরও রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দের হস্তক্ষেপে নির্বাচনের পূর্বেই বার্ষিক সাধারণ সভায় কমিটি ঘোষণা করা হয়। কিন্তু গঠনতন্ত্র অনুযায়ী কমিটি গঠিত না হওয়ায় প্রায় তিনমাস পর ঐ কমিটি বাতিল করে আহবায়ক কমিটি গঠন করা হয়।
এদিকে আহবায়ক কমিটি দায়িত্ব নিয়েই ভারতের ঘোজাডাঙ্গায় ট্রাক প্রতি ৩০ হাজার টাকা আদায়ের বিরুদ্ধে কঠোর আন্দোলনের ঘোষণা দিলে দু’দেশের উচ্চ পর্যায়ের টনক নড়ে। একপর্যায়ে উক্ত টাকা আদায় বন্ধ না হলেও তা অনেকটা নিয়ন্ত্রণে আসে এবং খুব গোপনে সীমিত আকারে ঐ কর্মকান্ড চলতে থাকে। এদিকে ভারতের ঐ চক্রের ষড়যন্ত্রে সিএন্ডএফ এজেন্ট এসাসিয়েশনের পাঁচ সদস্য বিশিষ্ঠ আহবায়ক কমিটির মধ্যে দ্বন্দ্বের সৃষ্টি হয়। একপর্যায়ে আহবায়কের পদ থেকে শেখ এজাজ আহমেদ স্বপনকে সরিয়ে দিয়ে মিজানুর রহমানকে নতুন আহবায়ক মনোনীত করা হয়।

এদিকে ভোমরায় সরকার দলীয় সিএন্ডএফ এজেন্টের সংখ্যা মোট ভোটারের অর্ধেকের অনেক কম। যেকারনে নির্বাচন হলে সরকার দলীয় সমর্থক ব্যবসায়ীরা জিততে পারবে না এমন ধোয়া তুলে নির্বাচন ছাড়াই কমিটি গঠনে শীর্ষ নেতারা উদ্যোগ নিয়েছে বলে জানা গেছে। আর এই সুযোগে এক জনপ্রতিনিধিদের বাড়িতে গতবারের মত টাকার বস্তা নিয়ে পদ প্রত্যাশিদের দৌড়দৌড়ি চলছে। গত বার ৯ সদস্যের ঐ কমিটি গঠনে দেড় কোটি টাকা লেনদেনের খবর ছড়িয়ে পড়ে। জানা গেছে এবার আরো বেশি টাকায় গোপনে পদের জন্য দেনদরবার অব্যাহত রয়েছে। অষ্ট্রেলিয়া প্রবাসি এক হাইব্রিড নেতা সভাপতি পদের জন্য কোটি টাকা দর তুলেছেন বলে শোনা গেছে। ঐ ব্যবসায়ী নির্বাচনের খবর শুনে দেশে ফিরে এসেছেন।

ব্যবসায়ী সূত্রগুলো আরো জানায়, এসোসিয়েশনের এই নির্বাচনের জন্য ভারতের মাফিয়ারা তাদের তৎপরতাও অব্যাহত রয়েছে। কমিটির শীর্ষ দুটি পদে সরকার দলীয় কেউ আসছে, না সরকার দলীয় হাইব্রিড অথবা বিএনপি জামাত পন্থি কেউ আসছে তা এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি। তবে নির্ধারিত ব্যক্তি ছাড়া অন্য কাউকে মনোনয়নপত্র কিনতে দেওয়া হবে না এ বিষয়টি অনেকটা নিশ্চিত করা হয়েছে সুত্রগুলোর পক্ষ থেকে


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ