শনিবার, ২৮ মে ২০২২, ১২:০৯ পূর্বাহ্ন
বিশেষ ঘোষণাঃ
• করোনাভাইরাস প্রতিরোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন, টিকা নিন। • গুজব নয়, সঠিক সংবাদ জানুন। • দেশের কিছু জেলা, উপজেলা, গুরুত্বপূর্ণ স্থান এবং বিশ্বের কয়েকটি দেশের গুরুত্বপূর্ণ শহরে (খালি থাকা সাপেক্ষে) প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। • আপনি কি কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে 'ফিল্ম ও মিডিয়া, গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা' বিষয়ে পড়ছেন? বাংলাদেশ প্রতিবেদন আপনাকে দিচ্ছে 'ইন্টার্নশিপ'-এর সুযোগ। • আপনিও হতে পারেন সাংবাদিক! চলতি পথে নানা অসঙ্গতি, দুর্নীতি, কারো সফলতা বা যেকোনো ভিন্নধর্মী খবর (ছবি অথবা ভিডিও) পাঠাতে পারেন। • হটলাইনঃ +৮৮০ ১৯ ০৯ ৮৬ ২৬ ১৬ (হোয়াটসঅ্যাপ), • ই-মেইলঃ protibedonbd@gmail.com • গুগল, ফেসবুক ও ইউটিউবে আমাদের পেতে Bangladesh Protibedon লিখে সার্চ দিন।

না ফেরার দেশে ইবি শিক্ষার্থী তাহসিব

নিজস্ব বার্তা প্রতিবেদক
প্রকাশকালঃ শনিবার, ৭ মে, ২০২২

না ফেরার দেশে ইবি শিক্ষার্থী তাহসিব।

ইবি প্রতিনিধি:

সড়ক দূর্ঘটনায় মারাত্মক আহত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) শিক্ষার্থী তাহসিব হোসেন। তিনি আল-কোরআন এন্ড ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী। শনিবার সকালে বিভাগীয় সভাপতি প্রফেসর ড. এয়াকুব আলী এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, গতকাল শুক্রবার রাত ৮ টার দিকে ঢাকার নিউরোসাইন্স হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাহসিব শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। তার বাড়ি বরগুনা জেলার বামনা উপজেলায়। শনিবার বাদ যোহর তার নিজ বাড়িতে জানাজার নামাজ অনুষ্ঠিত হবে।

সহপাঠী ও বিভাগীয় সূত্রে জানা গেছে, গত পহেলা মে ঝিনাইদহ জেলার ভাটই বাজার এলাকায় সাইকেলে যাচ্ছিল তাহসিব। এসময় একটি বাসের ধাক্কায় সড়কে পড়ে গিয়ে তার মাথার পিছনের হাড় ভেঙ্গে যায় এবং মস্তিষ্কে রক্ত জমাট বাঁধে। পরে সেখান থেকে তাকে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা ফরিদপুরের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজে নেওয়ার পরামর্শ দেন। সেখানকার চিকিৎসকরা দ্রুত ঢাকা নেওয়ার পরামর্শ দেন।

পরে গত ৪ মে ঢাকার নিউরোসাইন্স হাসপাতালে ভর্তি করানো হলে প্রথমদিনেই আইসিইউতে নেওয়া হয়। পরিস্থিতি মোটামুটি স্বাভাবিক থাকলেও গতকাল শুক্রবার বিকেলে হঠাৎ করেই অক্সিজেন সেচুরেশন কমে যায়। এসময় ভেন্টিলেটর দিলেও হৃদস্পন্দন অনেক কম ছিল। পরে রাত আনুমানিক ৮ টার দিকে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তাহসিব।

বিভাগীয় সভাপতি প্রফেসর ড. এয়াকুব আলী বলেন, আমি সভাপতি হওয়ার পর তিনজন শিক্ষার্থীকে হারিয়েছি। শিক্ষার্থী হারানো অনেক বেদনাদায়ক। তাহসিবের মাগফিরাত ও শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করছি। আমরা বিভাগের পক্ষ থেকে একটি দোয়ার আয়োজন করবো।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ