শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৩:১৬ পূর্বাহ্ন
বিশেষ ঘোষণাঃ
• করোনাভাইরাস প্রতিরোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন, টিকা নিন। • গুজব নয়, সঠিক সংবাদ জানুন। • দেশের কিছু জেলা, উপজেলা, গুরুত্বপূর্ণ স্থান এবং বিশ্বের কয়েকটি দেশের গুরুত্বপূর্ণ শহরে (খালি থাকা সাপেক্ষে) প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। • আপনি কি কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে 'ফিল্ম ও মিডিয়া, গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা' বিষয়ে পড়ছেন? বাংলাদেশ প্রতিবেদন আপনাকে দিচ্ছে 'ইন্টার্নশিপ'-এর সুযোগ। • আপনিও হতে পারেন সাংবাদিক! চলতি পথে নানা অসঙ্গতি, দুর্নীতি, কারো সফলতা বা যেকোনো ভিন্নধর্মী খবর (ছবি অথবা ভিডিও) পাঠাতে পারেন। • হটলাইনঃ +৮৮০ ১৯ ০৯ ৮৬ ২৬ ১৬ (হোয়াটসঅ্যাপ), • ই-মেইলঃ protibedonbd@gmail.com • গুগল, ফেসবুক ও ইউটিউবে আমাদের পেতে Bangladesh Protibedon লিখে সার্চ দিন।

পুরো রমজানে এক সাথে ইফতার করেন পাতায়া প্রবাসী বাংলাদেশিরা

বাংলাদেশ প্রতিবেদন
প্রকাশকালঃ শনিবার, ৩০ এপ্রিল, ২০২২

থাইল্যান্ড প্রতিনিধি

পুরো রমজান মাসে এক সাথে ইফতারে অংশগ্রহন করেন থাইল্যান্ডের পাতায়াতে অবস্থানরত প্রবাসী বাংলাদেশীরা। সবাই মিলে কেনাকাটা এবং আয়োজনে শরীক হন তারা।

থাইল্যান্ডের পর্যটন নগরী পাতায়ার বাংলাদেশী কমিনিউটির এমন ব্যতিক্রম আয়োজন প্রসংশিত হয়েছে সর্বত্রই। প্রবাসী বাংলাদেশী পাতায়া এসোসিয়েশনের নেত্রীবৃন্দের সাথে কথা বলে জানা গেছে, রমজানের পুরো সময়টাতে সকলেই কর্মব্যস্থতা শেষে ইফতারের সময় ছুটে আসেন বাংলাদেশী রেস্টুরেন্ট ইন্ডিয়ান হাটে। রমজানের সময় প্রতিদিনই ৩০ থেকে ৩৫ জন বাংলাদেশি নিয়মিত অংশগ্রহণ করেন।

ইফতারের আইটেম হিসেবে বাংলাদেশী এবং থাই খাবারের আয়োজন করা হয়। বাংলাদেশী খাবারের মধ্যে পিয়াজু, আলুর চপ, বেগুনী, ছোলা, মুড়ি, ড্রাগন, আম, রামভুটান, লংঙ্গান, বাঙ্গী, পেঁপে, কলা, তরমুজ। ভাড়ী খাবারের মধ্যে ভাত, গরুর মাস, মুরগীর মাংস, সবজী, ডাল ইত্যাদি। ইফতার শেষে রোজাদারদের জন্য নামাজ পরা এবং নামাজের পর চা ও কফির ব্যবস্থা ছিল।
প্রবাসী বাংলাদেশী পাতায়া এসোসিয়েশনের সভাপতি কামরুল হাসান বলেন, সকলের নিরলস প্রচেষ্টায় একটা সফল ইফতার আয়োজন করাই এই মহামারীর মধ্যে আমাদের অন্যতম সাফল্য। এই আয়োজনের মাধ্যমে পাতায়া শহরে অবস্থানরত বাংলাদেশী ভাইয়েরা একই ছাদের নিচে আসতে পেরেছি।

তিনি আরো বলেন, সকলেই সাধ্যানুযায়ী চাঁদা দিয়ে এই ইফতার অনুষ্ঠানে অংশগ্রহন করেন। আমার রেস্টুরেন্টে সকলেই ইফতারের সময় চলে আসেন। তিনি আরো বলেন, করোনা মহামারীর কারনে রেস্টুরেন্টটি বন্ধ থাকলেও শুধুমাত্র ইফতারের জন্য আমরা খোলা রেখেছি।

থাইল্যান্ড প্রবাসী নাজীর আহমেদ সরকার বলেন, আমরা সব সময়ই চেষ্টা করি পাতায়াতে অবস্থানরত বাংলাদেশীদের নিয়ে বিভিন্ন ধরনের অনুষ্ঠান আয়োজন করা। বিশেষ করে রমজানে সকলেই একত্রিত হওয়াটা একটা বড় ব্যাপার। আশা করছি ভবিষ্যতেও এ ধরনের আয়োজন অব্যহত থাকবে।

তিনি আরো বলেন, ঈদের দিন নামাজের পর ইন্ডিয়ান হাট রেস্টুরেন্টে একটি মধ্যাহ্ন ও মিষ্টান্ন ভোজের ব্যবস্থা করা হয়েছে। ঈদের পর দিন প্রবাসী বাংলাদেশী এবং তাদের পরিবারের সদস্যদের নিয়ে একটি ব্যতিক্রম পিকনিকের আয়োজন করা হয়েছে। সারা দিন ব্যাপী একটি ফল বাগানে বিভিন্ন ধরনের ফল খাবেন।

 

 


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ