শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৩:৪৯ পূর্বাহ্ন
বিশেষ ঘোষণাঃ
• করোনাভাইরাস প্রতিরোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন, টিকা নিন। • গুজব নয়, সঠিক সংবাদ জানুন। • দেশের কিছু জেলা, উপজেলা, গুরুত্বপূর্ণ স্থান এবং বিশ্বের কয়েকটি দেশের গুরুত্বপূর্ণ শহরে (খালি থাকা সাপেক্ষে) প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। • আপনি কি কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে 'ফিল্ম ও মিডিয়া, গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা' বিষয়ে পড়ছেন? বাংলাদেশ প্রতিবেদন আপনাকে দিচ্ছে 'ইন্টার্নশিপ'-এর সুযোগ। • আপনিও হতে পারেন সাংবাদিক! চলতি পথে নানা অসঙ্গতি, দুর্নীতি, কারো সফলতা বা যেকোনো ভিন্নধর্মী খবর (ছবি অথবা ভিডিও) পাঠাতে পারেন। • হটলাইনঃ +৮৮০ ১৯ ০৯ ৮৬ ২৬ ১৬ (হোয়াটসঅ্যাপ), • ই-মেইলঃ protibedonbd@gmail.com • গুগল, ফেসবুক ও ইউটিউবে আমাদের পেতে Bangladesh Protibedon লিখে সার্চ দিন।

যৌতুকের দাবীতে গৃহবধুকে হত্যার অভিযোগে থানায় মামলার এজহার

নিজস্ব প্রতিবেদক ভোলা
প্রকাশকালঃ সোমবার, ২৫ এপ্রিল, ২০২২

যৌতুকের দাবীতে শারমিন (২১) নামের এক গৃহবধুকে স্বাসরোধ করে হত্যার অভিযোগে স্বামী শফিক সহ ৫জনকে আসামি করে চরফ্যাশন থানায় একটি মামলার এজহার জমা দিয়েছে পরিবার। ওই গৃহবধুর পিতা মো. শাজাহান অভিযোগ করে বলেন, আমার মেয়ে শারমিনকে তার স্বামী শফিক ও তার পরিবারের সদস্যরা যৌতুকের দাবিতে গত ২২ এপ্রিল রাতে স্বাসরোধ করে হত্যা করে তার পরিবারের সদস্যদের নিয়ে পালিয়ে গেছে। খবর পেয়ে পুলিশ গত শনিবার সকালে মাদ্রাজ ইউনিয়নের মিয়াজনপুর গ্রামের ওই গৃহবধুর স্বামীর বসত ঘর থেকে নিহত গৃহবধু শারমিনের লাশ উদ্ধার করে। শফিকের আত্মীয় স্বজন ও স্থানীয় ইউপি সদস্য এবং প্রভাবশালী মহল হত্যার বিষয়টি নিয়ে সমঝতা করার চেষ্টা করে বলেও ওই গৃহবধূর পিতা জানান। তিনি বলেন, আমি কর্মের প্রয়োজনে চট্টগ্রামে থাকি। আমি ঘটনাস্থলে না থাকার সুযোগে স্থানীয় ইউপি সদস্যসহ প্রভাবশালী মহলের লোকেরা আমার পরিবারের সঙ্গে সমঝতা করার জন্য চেষ্টা করে। রবিবার (২৪এপ্রিল) নিহতের ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের কাছে লাশ হস্তান্তর করা হয়েছে বলে থানা সূত্রে জানা গেছে। এজহার সূত্রে জানা যায়, ৪বছর পূর্বে মাদ্রাজ ইউনিয়নের চর আফজাল ২নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা মৃত মফিজ মৌলভীর ছেলে শফিকের সঙ্গে মিয়াজানপুর ৯নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা সাহজাহানের মেয়ের বিয়ে হয়। ওই গৃহবধূর দেড় বছরের একটি শিশুকন্যা রয়েছে। বিয়েতে যৌতুক হিসেবে নগদ টাকা ও স্বর্ণালঙ্কারসহ ৩লাখ টাকার আসবাসপত্র দেয়ার পরেও আরো যৌতুক দাবি করে প্রায়সময় মারধরসহ বিভিন্নভাবে নির্যাতন করে আসছে এবং দাবীকৃত যৌতুক দিতে না পারায় তাদের সংসারে কলহ লেগেই থাকতো। ঘটনার দিন শুক্রবার রাতে পরিকল্পীতভাবে বাবার বাড়ি থেকে তার দাবীকৃত টাকা এনে দিতে বলেন। গৃহবধু শারমিন ওই টাকা দিতে অস্বীকার করলে স্বামী শফিক তাকে দু’দফায় মারধর করে এবং মুখ চেপে স্বাসরোধ করে হত্যা করে নিথর দেহ বসত ঘরের খাটের ওপর রেখে স্বামী ও তার পরিবারের সদস্যরা পালিয়ে যায়। প্রতিবেশীরা লাশ দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেয়। চরফ্যাসন থানা পুলিশ এসে নিহতের লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসেন। অভিযুক্ত গৃহবধুর স্বামী শফিক পলাতক থাকায় তার বক্তব্য জানাযায়নি। এবিষয়ে চরফ্যাশন থানার অফিসার ইনচার্জ মনির হোসেন মিয়া বলেন,লাশ উদ্ধারের পর থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে। লাশ ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের কাছে বুঝিয়ে দেয়ার পর ওই গৃহবধূর পিতা রবিবার রাতে একটি হত্যা মামলার এজহার জমা দিয়েছে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন অনুযায়ী পুলিশ যথযথ ব্যবস্থা নিবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ