শনিবার, ২৮ মে ২০২২, ০১:৩৫ পূর্বাহ্ন
বিশেষ ঘোষণাঃ
• করোনাভাইরাস প্রতিরোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন, টিকা নিন। • গুজব নয়, সঠিক সংবাদ জানুন। • দেশের কিছু জেলা, উপজেলা, গুরুত্বপূর্ণ স্থান এবং বিশ্বের কয়েকটি দেশের গুরুত্বপূর্ণ শহরে (খালি থাকা সাপেক্ষে) প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। • আপনি কি কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে 'ফিল্ম ও মিডিয়া, গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা' বিষয়ে পড়ছেন? বাংলাদেশ প্রতিবেদন আপনাকে দিচ্ছে 'ইন্টার্নশিপ'-এর সুযোগ। • আপনিও হতে পারেন সাংবাদিক! চলতি পথে নানা অসঙ্গতি, দুর্নীতি, কারো সফলতা বা যেকোনো ভিন্নধর্মী খবর (ছবি অথবা ভিডিও) পাঠাতে পারেন। • হটলাইনঃ +৮৮০ ১৯ ০৯ ৮৬ ২৬ ১৬ (হোয়াটসঅ্যাপ), • ই-মেইলঃ protibedonbd@gmail.com • গুগল, ফেসবুক ও ইউটিউবে আমাদের পেতে Bangladesh Protibedon লিখে সার্চ দিন।

বাগেরহাটে ‘উগ্রবাদ-জঙ্গীবাদ সহিষ্ণু এলাকা’ সৃষ্টির অভিজ্ঞতা বিনিময় শীর্ষক সভা

নিজস্ব বার্তা প্রতিবেদক
প্রকাশকালঃ বৃহস্পতিবার, ৩১ মার্চ, ২০২২

বাগেরহাটে ‘উগ্রবাদ-জঙ্গীবাদ সহিষ্ণু এলাকা’ সৃষ্টির অভিজ্ঞতা বিনিময় শীর্ষক সভা।

সোহেলরানা,বাগেরহাট জেলা প্রতিনিধি:

বাগেরহাটঃবৃহস্পতিবার( ৩১ মার্চ) বেলা সাড়ে ১১ টায় দি হাঙ্গার প্রজেক্ট বাংলাদেশের উদ্যোগে বাগেরহাটে জেলা পরিষদের কনফারেন্স রুমে একটি অভিজ্ঞতা বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানটিতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশে নিযুক্ত জার্মান অ্যম্বাসিডর আখিম ট্রোস্টার, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জার্মান রাষ্ট্রদূতের সহধর্মীণি উপদেষ্টা বেটিনা ট্রোষ্টার।
দি হাঙ্গার প্রজেক্টের কান্ট্রি ডিরেক্টর ড. বদিউল আলম মজুমদারের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত এ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বাগেরহাট জেলার জেলা প্রশাসক মো. আজিজুর রহমান।

প্রধান অতিথি আখিম ট্রোস্টার তার বক্তব্যে বলেন, আমার দেশে ৮০ বছর আগে ধর্মীয় উগ্রবাদের কারনে ধ্বংসের দ্বার প্রান্তে গিয়েছিলো, বাংলাদেশ যেনো এমন না হয়। আমি এ প্রকল্পের সাথে সংশ্লিষ্ট সকলের কথা শুনে অভিভ’ত এবং জার্মান সরকার এমন একটা প্রকল্পের সাথে থাকতে পেরে গর্বিত।

জেলা প্রশাসক তার বক্তব্যে বলেন আমরা সকলের সাথে কাজ করছি যাতে করে বাগেরহাট সম্পূর্ণ জঙ্গীমুক্ত হবে। ব্রেইভ প্রকল্প বাগেরহাটে একটা বড় প্লাটফর্ম তৈরি করেছে, যা এ জেলাকে সম্প্রীতির জেলা হিসেবে তৈরি করতে কাজ করছে। তাই এ জেলায় সাম্প্রতিক ধর্মীয় উত্তেজনার সময় এখানে সকল ধর্মের ভিতর সহনশীল একটা অবস্থা বিরাজ করেছে। এটা তৈরিতে ব্রেইভ প্রকল্প জেলা প্রশাসনেক সহেযাগীতা করেছে। পরবর্তীতে জার্মান অ্যাম্বাসেডর ব্রেইভ প্রকল্পের প্রায় ৩০০ তরুণ-তরুণীর সাথে অভিজ্ঞতা বিনিময় করার জন্য জেলা পরিষদের অডিটোরিয়াম যান।

২০২০ সাল থেকে দি হাঙ্গার প্রজেক্ট ও প্রশিক্ষিত তরুণ তরুণী স্বেচ্ছাব্রতীরা বাগেরহাট জেলার তিনটি উপজেলার ২৬ টি ইউনিয়নে ‘উগ্রবাদ-জঙ্গীবাদ সহিষ্ণু এলাকা’ সৃষ্টির উদ্যোগ গ্রহণ করেছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ