শুক্রবার, ২৭ মে ২০২২, ০৬:২৫ অপরাহ্ন
বিশেষ ঘোষণাঃ
• করোনাভাইরাস প্রতিরোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন, টিকা নিন। • গুজব নয়, সঠিক সংবাদ জানুন। • দেশের কিছু জেলা, উপজেলা, গুরুত্বপূর্ণ স্থান এবং বিশ্বের কয়েকটি দেশের গুরুত্বপূর্ণ শহরে (খালি থাকা সাপেক্ষে) প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। • আপনি কি কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে 'ফিল্ম ও মিডিয়া, গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা' বিষয়ে পড়ছেন? বাংলাদেশ প্রতিবেদন আপনাকে দিচ্ছে 'ইন্টার্নশিপ'-এর সুযোগ। • আপনিও হতে পারেন সাংবাদিক! চলতি পথে নানা অসঙ্গতি, দুর্নীতি, কারো সফলতা বা যেকোনো ভিন্নধর্মী খবর (ছবি অথবা ভিডিও) পাঠাতে পারেন। • হটলাইনঃ +৮৮০ ১৯ ০৯ ৮৬ ২৬ ১৬ (হোয়াটসঅ্যাপ), • ই-মেইলঃ protibedonbd@gmail.com • গুগল, ফেসবুক ও ইউটিউবে আমাদের পেতে Bangladesh Protibedon লিখে সার্চ দিন।

ভারতে অনুপ্রবেশের দায়ে বাংলাদেশী যুবককে পিঠিয়ে হত্যা

নিজস্ব বার্তা প্রতিবেদক
প্রকাশকালঃ সোমবার, ১৪ মার্চ, ২০২২

ভারতে অনুপ্রবেশের দায়ে বাংলাদেশী যুবককে পিঠিয়ে হত্যা।

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধিঃ

ভারতে অনুপ্রবেশ করায় সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলা সীমান্তে জনিক মিয়া
(২৩)নামে বাংলাদেশি এক যুবককে পিটিয়ে হত্যা করার অভিযোগ উঠেছে। নিহত

যুবক উপজেলার শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়নের বড়ছড়া গ্রামের জিল্লুর রহমানের
ছেলে। সোমবার সকালে উপজেলার উত্তর শ্রীপুর ইউনিয়নের ভাঙ্গারঘাট কোয়ারি
নামক স্থানে জনিককে আহত অবস্থায় ফেলে রেখে যায় ভারতীয়রা।

জানাযায়,উপজেলার বড়ছড়া সীমান্ত এলাকার স্পাই ইসহাক মিয়ার মাধ্যমে
ম্যানেজার বাংলো এলাকা দিয়ে রবিবার রাতে জনিক মিয়াসহ তিনজন ভারতে
অনুপ্রবেশ করে। পরে সেখানকার স্থানীয় যুবকরা তাকে চোর সন্দেহে পিটিয়ে
জিরো পয়েন্টের ভাঙ্গারঘাট কোয়ারি নামক স্থানে সকালে ফেলে রেখে যাওয়ার
স্থানীয় এলাকাবাসী দেখতে পায়। জানতে পেরে নিহতর পরিবারের লোকজন গুরুতর
আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কতব্যরত
চিকিৎসকগন তাকে মৃত ঘোষনা করে।

নিহতের পিতা জিল্লুর রহমান জানান,রবিবার রাতের খাবার খেয়ে বাড়ির বাহিরে
যায়। এর পর আজ সোমবার সকালে বড়ছড়া সীমান্ত এলাকায় তাকে পাই পরে সুনামগঞ্জ
সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কতব্যরত চিকিৎসকগন তাকে মৃত ঘোষনা করে।
এই ঘটনার বিষয়ে জানতে চাইলে বড়ছড়া বিজিবি ক্যাম্পের নায়েক সুবেদার আব্দুস
ছাত্তার জানান তিনি কিছুই জানে না।
স্থানীয় সচেতন মহল ক্ষোবের সাথে জানায়,ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর
সহযোগীতায় ভারতীয়দের অমানুষিক নির্যাতনের যুবক নিহতের ঘটনাটি গেছে। এভাবে
নির্যাতন না করে আইনশৃংখলা বাহিনীর হাতে সোর্পদ করতে পারত। আইন নিজেদের
হাতে তুলে নেয়ায় ঐ পরিবারে শোকের মাতম চলছে। যারা এই জগন্য কাজটি করেছে
তাদের বিরোদ্ধে আইন অনুযায়ী প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহন করা প্রয়োজন।
তাহিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুল লতিফ তরফদার জানান,ভারতে
অনুপ্রবেশ করায় তাহিরপুর সীমান্তের জনিক মিয়া (২৩)নামে বাংলাদেশি এক
যুবককে পিটিয়ে হত্যা করার হয়েছে বলে শুনেছি। কেন এবং কিভাবে তার মৃত্যু
হয়েছে তা এখনো জানা যায়নি। তবে কিভাবে তার মৃত্যু হয়েছে এ বিষয়ে তদন্ত
চলছে।

সুনামগঞ্জ ২৮ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মোহাম্মদ
মাহবুবুর রহমান বলেন,এ ধরনের একটি ঘটনা শুনেছি। তবে নিহতের পরিবারের পক্ষ

থেকে কেউ এখনও অভিযোগ করেনি। অভিযোগ করলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ