বুধবার, ০৬ জুলাই ২০২২, ০৯:৩৭ অপরাহ্ন
বিশেষ ঘোষণাঃ
• করোনাভাইরাস প্রতিরোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন, টিকা নিন। • গুজব নয়, সঠিক সংবাদ জানুন। • দেশের কিছু জেলা, উপজেলা, গুরুত্বপূর্ণ স্থান এবং বিশ্বের কয়েকটি দেশের গুরুত্বপূর্ণ শহরে (খালি থাকা সাপেক্ষে) প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। • আপনি কি কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে 'ফিল্ম ও মিডিয়া, গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা' বিষয়ে পড়ছেন? বাংলাদেশ প্রতিবেদন আপনাকে দিচ্ছে 'ইন্টার্নশিপ'-এর সুযোগ। • আপনিও হতে পারেন সাংবাদিক! চলতি পথে নানা অসঙ্গতি, দুর্নীতি, কারো সফলতা বা যেকোনো ভিন্নধর্মী খবর (ছবি অথবা ভিডিও) পাঠাতে পারেন। • হটলাইনঃ +৮৮০ ১৯ ০৯ ৮৬ ২৬ ১৬ (হোয়াটসঅ্যাপ), • ই-মেইলঃ protibedonbd@gmail.com • গুগল, ফেসবুক ও ইউটিউবে আমাদের পেতে Bangladesh Protibedon লিখে সার্চ দিন।

সরাইলে দুই ইটভাটাকে ১১ লক্ষ টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত

বাংলাদেশ প্রতিবেদন
প্রকাশকালঃ বৃহস্পতিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২২

সরাইলে দুই ইটভাটাকে ১১ লক্ষ টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

আব্দুল আওয়াল খান/সরাইল প্রতিনিধিঃ

ব্রাক্ষণবাড়িয়ার সরাইলে অবৈধভাবে ইটভাটা পরিচালনা করার অভিযোগে দুই ইটভাটাকে ১১ লক্ষ টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।
বুধবার সকালে উপজেলার বিভিন্ন ইটভাটায় অভিযান পরিচালনা করে পরিবেশ অধিদপ্তরের মনিটরিং এ্যান্ড এনফোর্সমেন্ট উইংয়ের ভ্রাম্যমান আদালত। এসময় অবৈধভাবে ইটভাটা পরিচালনা করার অভিযোগে দুই ইটভাটাকে ১১ লক্ষ টাকা জরিমানা করা হয়।

পরিবেশ অধিদপ্তরের মনিটরিং এন্ড এনফোর্সমেন্ট উইংয়ের ভ্রাম্যমান আদালত সূত্রে জানা গেছে, বাংলাদেশ পরিবেশ সংরক্ষণ আইন, ১৯৯৫ (সংশোধিত ২০১০), ইট প্রস্তুত ও ভাটা স্থাপন (নিয়ন্ত্রণ) (সংশোধন) অধ্যাদেশ, ২০১৮ অনুযায়ী অবৈধভাবে ইটভাটা পরিচালনা করার অপরাধে সরাইল উপজেলার শাহবাজপুর ইউনিয়নে মেসার্স দয়াল ব্রিকসকে ৬ লাখ টাকা, মেসার্স মক্কা মদিনা ব্রিকসকে ৫ লাখ টাকা জরিমানা করেছে পরিবেশ অধিদপ্তর।

ভ্রাম্যমান আদালতটি পরিচালনা করেন অধিদপ্তরের মনিটরিং এ্যান্ড এনফোর্সমেন্ট উইংয়ের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট কাজী তামজীদ আহমেদ। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন ফায়ার সার্ভিসের লিডার রিয়াজ মোহাম্মদ ও সরাইল থানা পুলিশ পরিদর্শক মোঃ বাবুল হেসেন ।

ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কাজী তামজীদ আহমেদ জানায়, কোন নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করে জনবসতি ও কৃষি জমির পাশে খোলা জায়গায় ইটভাটার ফলে মারাত্মক ক্ষতি করছে পরিবেশের।

এছাড়া ওইসব ভাটার জন্য ফসিল জমি থেকে মাটি সংগ্রহ করার ফলে আবাদী জমির উর্বরতা নষ্ট হচ্ছে। বাংলাদেশ পরিবেশ সংরক্ষণ আইন, ১৯৯৫ (সংশোধিত ২০১০), পরিবেশ সংরক্ষণ বিধিমালা, ১৯৯৭ (সংশোধিত ২০০৭) এবং ইট প্রস্তুত ও ভাটা স্থাপন (নিয়ন্ত্রণ) আইন, ২০১৩ অনুযায়ী অবৈধভাবে পরিচালিত ইটভাটার বিরুদ্ধে প্রত্যেক জেলায় ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনার মাধ্যমে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা প্রদান করা হবে।

এছাড়াও অবৈধভাবে পরিচালিত ইটভাটার বিরুদ্ধে পরিবেশ অধিদপ্তরের এনফোর্সমেন্টের এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ