বুধবার, ০৬ জুলাই ২০২২, ০৯:৩৩ অপরাহ্ন
বিশেষ ঘোষণাঃ
• করোনাভাইরাস প্রতিরোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন, টিকা নিন। • গুজব নয়, সঠিক সংবাদ জানুন। • দেশের কিছু জেলা, উপজেলা, গুরুত্বপূর্ণ স্থান এবং বিশ্বের কয়েকটি দেশের গুরুত্বপূর্ণ শহরে (খালি থাকা সাপেক্ষে) প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। • আপনি কি কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে 'ফিল্ম ও মিডিয়া, গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা' বিষয়ে পড়ছেন? বাংলাদেশ প্রতিবেদন আপনাকে দিচ্ছে 'ইন্টার্নশিপ'-এর সুযোগ। • আপনিও হতে পারেন সাংবাদিক! চলতি পথে নানা অসঙ্গতি, দুর্নীতি, কারো সফলতা বা যেকোনো ভিন্নধর্মী খবর (ছবি অথবা ভিডিও) পাঠাতে পারেন। • হটলাইনঃ +৮৮০ ১৯ ০৯ ৮৬ ২৬ ১৬ (হোয়াটসঅ্যাপ), • ই-মেইলঃ protibedonbd@gmail.com • গুগল, ফেসবুক ও ইউটিউবে আমাদের পেতে Bangladesh Protibedon লিখে সার্চ দিন।

ভৈরবে ইউপি নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থীর বিরুদ্ধে ভোট কারচুপির অভিযোগ নৌকা প্রার্থীর

স্টাফ রিপোর্টার, বাংলাদেশ প্রতিবেদন!!
প্রকাশকালঃ বুধবার, ৫ জানুয়ারি, ২০২২

ভৈরবে ইউপি নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থীর বিরুদ্ধে ভোট কারচুপির অভিযোগ নৌকা প্রার্থীর

কিশোরগঞ্জ জেলার ভৈরব উপজেলায় চতুর্থ ধাপে ২৬ ডিসেম্বর ২০২১ইং সালে ৪ নং গজারিয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।উক্ত নির্বাচনে আওয়ামীলীগ মনোনীত নৌকা মার্কা চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী ছিলেন ফরিদ উদ্দিন খান।

গত ৪ জানুয়ারি রোজ মঙ্গলবার রাত ৮ টায় রিপোর্টার্স ক্লাব ও ইউনিটির কার্যালয়ে সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি বলেন ২৬ ডিসেম্বর নির্বাচনে চশমা মার্কা প্রতীকে ৭,৮ ও ৯ নং ওয়ার্ডে প্রবাসী,মৃত,সহকারী প্রিজাইটিং অফিসারের স্বাক্ষরবিহীন ও ক্রমিক নং বিহীন জালভোট দেওয়া হয়।

ঐদিন ভোট চলাকালীন সময়ে পূর্বপরিকল্পিতভাবে স্বতন্ত্রপার্থী আঃছালাম শাহারিয়ার চশমা মার্কার সমর্থকগণ ককটেল ফাটিয়ে ত্রাস সৃষ্টি করিলে গণ্ডগোলের কারণে দুপুর ২টা থেকে বিকাল ৪ ঘটিকা পর্যন্ত কেন্দ্রটি বন্ধ থাকে। প্রিজাইটিং অফিসারকে কেন্দ্রটি বন্ধ ঘোষণার জন্য লিখিত অনুরোধ করা সত্বেও কেন্দ্রটি বন্ধ করেনি এবং ফলাফল স্থগিত করেনি।

তিনি আরো বলেন ২ নং কেন্দ্রে গণ্ডগোলের কারণে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সকল সদস্যগন ঐ কেন্দ্রে চলে আসেন।ঐ সুযোগে আঃছালাম শাহারিয়ার নিজ গ্রাম বাঁশগাড়িতে ৭,৮ ও ৯ নং ওয়ার্ডে চশমা মার্কার লোকজন নৌকা মার্কার এজেন্টদের বের করে দিয়ে প্রবাসী, মৃত ব্যক্তিদের ভোট কাস্টিং করে।স্বতন্ত্র প্রার্থীর নিজ বাড়ীর সামনে ৯নং ওয়ার্ড কেন্দ্র বাঁশগাড়ি ফোরকানিয়া মাদ্রাসার সামনে অবস্থিত বড় বাড়ী জামে মসজিদের ২ য় তলায় ১ টি ব্যালট বাক্স ও ৩ টি বই (৩০০ভোট) নিয়ে ভোটার ক্রমিক নং বিহীন ব্যালট চশমা মার্কায় ভোট মেরে বাক্স প্রিজাইটিং অফিসারের নিকট পৌছায়ে দেয়।

আবার ৭,৮ ও ৯ নং ওয়ার্ড কেন্দ্রে চশমা মার্কা বান্ডিলের ভিতর নৌকা মার্কা ব্যালট ডুকিয়ে বান্ডিল করে ফেলেন।তাদের এই সব কর্মকাণ্ডের জন্য ১০৯ ভোটে পরাজিত হই।এসকল কর্মকাণ্ড নির্বাচন আচরণ বিধির পরিপন্থী, তদন্তের মাধ্যমে সুষ্ট সমাধান অতি জরুরি মনে করি।তিনি জানান আমি লিখিত অভিযোগ দিয়েছি প্রধান নির্বাচন কমিশনার কার্যালয় আগারগাঁও,ঢাকা ও ভৈরব উপজেলা নির্বাচন কমিশন অফিসে।

ভৈরব উপজেলা নির্বাচন অফিসার প্রলয় কুমার শাহা বলেন গত ২৬ ডিসেম্বর ২০২১ ইং আমার নিকট গজারিয়া ইউনিয়নের অভিযোগ এসেছে, প্রিজাইটিং অফিসার নিকট জানতে চাওয়া হলে তিনি কেন্দ্রটি চালানোর মতো পরিবেশ আছে বলে জানান এবং তিনি তাও জানান যে যদি সে মামলা করতে চাই তাহলে তদন্ত সাপেক্ষে বিষয়টি খতিয়ে দেখা হবে।আঃছালাম শাহারিয়ার বলেন নৌকা মার্কা প্রার্থীর অভিযোগটি মিথ্যা এবং বানোয়াট।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ