বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর ২০২২, ০৬:১৭ পূর্বাহ্ন
বিশেষ ঘোষণাঃ
• করোনাভাইরাস প্রতিরোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন, টিকা নিন। • গুজব নয়, সঠিক সংবাদ জানুন। • দেশের কিছু জেলা, উপজেলা, গুরুত্বপূর্ণ স্থান এবং বিশ্বের কয়েকটি দেশের গুরুত্বপূর্ণ শহরে (খালি থাকা সাপেক্ষে) প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। • আপনি কি কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে 'ফিল্ম ও মিডিয়া, গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা' বিষয়ে পড়ছেন? বাংলাদেশ প্রতিবেদন আপনাকে দিচ্ছে 'ইন্টার্নশিপ'-এর সুযোগ। • আপনিও হতে পারেন সাংবাদিক! চলতি পথে নানা অসঙ্গতি, দুর্নীতি, কারো সফলতা বা যেকোনো ভিন্নধর্মী খবর (ছবি অথবা ভিডিও) পাঠাতে পারেন। • হটলাইনঃ +৮৮০ ১৯ ০৯ ৮৬ ২৬ ১৬ (হোয়াটসঅ্যাপ), • ই-মেইলঃ protibedonbd@gmail.com • গুগল, ফেসবুক ও ইউটিউবে আমাদের পেতে Bangladesh Protibedon লিখে সার্চ দিন।

বিএনপির সমাবেশে পুলিশের হামলায় ৩০০ জন আহত

বাংলাদেশ প্রতিবেদন
প্রকাশকালঃ বুধবার, ২২ ডিসেম্বর, ২০২১

হবিগঞ্জে বিএনপির সমাবেশে পুলিশ হামলা চালিয়ে প্রায় ৩০০ জনকে আহত করেছে বলে অভিযোগ করেছে দলটি।

বুধবার (২২ ডিসেম্বর) নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী এ অভিযোগ করেন।

তিনি বলেন, দুপুরে হবিগঞ্জের শায়েস্তানগরে দলীয় কার্যালয়ের সামনে সমাবেশ শুরু হলে পুলিশ কোনো উসকানি ছাড়াই সমাবেশে হামলা চালায় এবং নির্বিচারে গুলি করে,এতে তিন শতাধিক নেতাকর্মী আহত হয়।

রিজভী বলেন, দেশব্যাপী কর্মসূচির অংশ হিসেবে হবিগঞ্জ জেলা বিএনপি দলীয় চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার বিদেশে চিকিৎসার দাবিতে এ সমাবেশের আয়োজন করে।

সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন ও বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন দলের চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা জয়নুল আবেদীন ফারুক।

রিজভী জানান, আহতদের মধ্যে হবিগঞ্জ জেলা জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের (জেসিডি) সাংগঠনিক সম্পাদক রাজীব আহমেদ রিগান, যুবদলের সাধারণ সম্পাদক জালাল, বিএনপি নেতা অ্যাডভোকেট শরীফ, জেসিডি নেতা সাইদুর রহমান, আরশাদ, আব্দুল আহাদ তুষার, মৎস্যজীবী দল নেতা মোবারক হোসেন, শিপন আহমেদ শাহজাহান ও জহির আলী রয়েছেন।

তিনি বলেন, হবিগঞ্জে শান্তিপূর্ণ সমাবেশে পুলিশের হামলা  বর্বর ও ন্যাক্কারজনক।  অবৈধ শাসন ক্ষমতা টিকিয়ে রাখতে এই হামলা চালানো হয়েছে। আমরা আমাদের গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করছি এবং পুলিশি হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই।

বিএনপি নেতা বলেন, জনগণ ও আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে সরকার লাঠিগুলিকে নিজেদের অবলম্বন মনে করছে।

রিজভী বলেন, আওয়ামী নাৎসিবাদ এখন চরম মোড় নিয়েছে এবং এটি রক্তের গন্ধ নেয়ার চেষ্টা করছে। তারা জোর করে গুম, হত্যা এবং বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ডের মাধ্যমে ক্ষমতা দখল করে সহিংস সন্ত্রাসবাদের অনুশীলন করছে।

রিজভী অভিযোগ করে বলেন, সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড চালানোর জন্য সরকার পুলিশকে তাদের প্রাণঘাতী অস্ত্রে পরিণত করেছে। যখনই তারা গণতন্ত্র স্বীকৃত মিছিল বা সমাবেশ দেখেন, তখনই তারা পুলিশকে দিয়ে তা ছত্রভঙ্গ করে দেয়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ