মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০১:১৬ পূর্বাহ্ন
বিশেষ ঘোষণাঃ
• করোনাভাইরাস প্রতিরোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন, টিকা নিন। • গুজব নয়, সঠিক সংবাদ জানুন। • দেশের কিছু জেলা, উপজেলা, গুরুত্বপূর্ণ স্থান এবং বিশ্বের কয়েকটি দেশের গুরুত্বপূর্ণ শহরে (খালি থাকা সাপেক্ষে) প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। • আপনি কি কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে 'ফিল্ম ও মিডিয়া, গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা' বিষয়ে পড়ছেন? বাংলাদেশ প্রতিবেদন আপনাকে দিচ্ছে 'ইন্টার্নশিপ'-এর সুযোগ। • আপনিও হতে পারেন সাংবাদিক! চলতি পথে নানা অসঙ্গতি, দুর্নীতি, কারো সফলতা বা যেকোনো ভিন্নধর্মী খবর (ছবি অথবা ভিডিও) পাঠাতে পারেন। • হটলাইনঃ +৮৮০ ১৯ ০৯ ৮৬ ২৬ ১৬ (হোয়াটসঅ্যাপ), • ই-মেইলঃ protibedonbd@gmail.com • গুগল, ফেসবুক ও ইউটিউবে আমাদের পেতে Bangladesh Protibedon লিখে সার্চ দিন।

ডেঙ্গু : হাসপাতালে ভর্তি আরও ৩৯ রোগী

বাংলাদেশ প্রতিবেদন
প্রকাশকালঃ সোমবার, ২০ ডিসেম্বর, ২০২১

ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে ঢাকাসহ সারাদেশে গত ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন আরও ৩৯ জন নতুন রোগী। এ নিয়ে দেশে চলতি বছরের ২০ ডিসেম্বর পর্যন্ত ডেঙ্গুরোগীর সংখ্যা বেড়ে ২৮ হাজার ২১৬ জনে দাঁড়িয়েছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন ৩৯ রোগীর মধ্যে ঢাকার বিভিন্ন হাসপাতালে ১৭ জন ও ঢাকার বাইরের হাসপাতালে ২২ জন রোগী ভর্তি হন। এর মধ্যে ঢাকায় সরকারি হাসপাতালে নয় জন ও বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি হন আট জন।

 

সোমবার (২০ ডিসেম্বর) সারাদেশের পরিস্থিতি নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের নিয়মিত ডেঙ্গুবিষয়ক প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

 

প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, এ বছরের ১ জানুয়ারি থেকে ২০ ডিসেম্বর পর্যন্ত দেশের সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি মোট ডেঙ্গুরোগীর সংখ্যা ২৮ হাজার ২১৬ জনে দাঁড়িয়েছে। এসময়ে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ১০৩ জন। হাসপাতালে ভর্তি রোগীদের মধ্যে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ২৭ হাজার ৯৭৯ জন।

 

এ বছরের জানুয়ারিতে ৩২ জন, ফেব্রুয়ারিতে নয় জন, মার্চে ১৩ জন, এপ্রিলে তিন জন , মে মাসে ৪৩ জন, জুনে ২৭২ জন, জুলাইয়ে দুই হাজার ২৮৬ জন, আগস্টে সাত হাজার ৬৯৮ জন, সেপ্টেম্বরে সাত হাজার ৮৪১ জন, অক্টোবরে পাঁচ হাজার ৪৫৮ জন, নভেম্বরে তিন হাজার ৫৬৭ জন এবং ২০ ডিসেম্বর পর্যন্ত রোগী ভর্তি হন ৯৯৪ জন।

 

এছাড়া ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া ১০১ জনের মধ্যে জুলাই ১২ জন, আগস্টে ৩৪ জন, সেপ্টেম্বরে ২৩ জন, অক্টোবরে ২২ জন, নভেম্বর সাত জন এবং ২০ ডিসেম্বর পর্যন্ত পাঁচ জনের মৃত্যু হয়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ