বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর ২০২২, ০৬:৪৫ পূর্বাহ্ন
বিশেষ ঘোষণাঃ
• করোনাভাইরাস প্রতিরোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন, টিকা নিন। • গুজব নয়, সঠিক সংবাদ জানুন। • দেশের কিছু জেলা, উপজেলা, গুরুত্বপূর্ণ স্থান এবং বিশ্বের কয়েকটি দেশের গুরুত্বপূর্ণ শহরে (খালি থাকা সাপেক্ষে) প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। • আপনি কি কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে 'ফিল্ম ও মিডিয়া, গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা' বিষয়ে পড়ছেন? বাংলাদেশ প্রতিবেদন আপনাকে দিচ্ছে 'ইন্টার্নশিপ'-এর সুযোগ। • আপনিও হতে পারেন সাংবাদিক! চলতি পথে নানা অসঙ্গতি, দুর্নীতি, কারো সফলতা বা যেকোনো ভিন্নধর্মী খবর (ছবি অথবা ভিডিও) পাঠাতে পারেন। • হটলাইনঃ +৮৮০ ১৯ ০৯ ৮৬ ২৬ ১৬ (হোয়াটসঅ্যাপ), • ই-মেইলঃ protibedonbd@gmail.com • গুগল, ফেসবুক ও ইউটিউবে আমাদের পেতে Bangladesh Protibedon লিখে সার্চ দিন।

কমলনগরে পারিবারিক দ্বন্ধকে পূঁজি করে স্কুল শিক্ষার্থীদের দিয়ে মানববন্ধনের প্রতিবাদে ভুক্তভোগীর সংবাদ সম্মেলন

বাংলাদেশ প্রতিবেদন
প্রকাশকালঃ রবিবার, ১৯ ডিসেম্বর, ২০২১

কমলনগরে পারিবারিক দ্বন্ধকে পূঁজি করে স্কুল শিক্ষার্থীদের দিয়ে মানববন্ধনের প্রতিবাদে ভুক্তভোগীর সংবাদ সম্মেলন।

এ আই তারেক/কমলনগর,লক্ষ্মীপুর:

লক্ষ্মীপুর কমলনগরে হাজির হাট ইউনিয়নের হাজী বাড়ীর পারিবারিক জমি সংক্রান্ত দ্বন্ধকে কেন্দ্র করে মিথ্যা মামলা ও পারিবারিক বিষয়ে তোয়াহা স্মৃতি বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এ কে এম জাহেদ বিল্লাহ বিদ্যালয়ের ছাত্রীদের দিয়ে মানববন্ধনের আয়োজনে ভুক্তভোগী পরিবারের পক্ষে সংবাদ সম্মেলন করেন ফজলুল করিম ও ফজলুল হক সবুজ।
১৯ ডিসেম্বর সকাল ১১ টায় স্থানীয় একটি হোটেল রুমে সংবাদ সম্মেলনে ফজলুল হক বলেন,আমরা ঐতিহ্যবাহী হাজী পরিবারের সকল ওয়ারিশ গন শান্তিপূর্ণ ভাবে বসাবাস করে আসছি। গত ১৪ ডিসেম্বর সন্ধায় আমার ফুফাতো ভাই ও তোয়াহা স্মৃতি বালিকা বিদ্যালয় সভাপতি আবুল খায়ের ছোট ছেলে আসিকুল হক সুখনের সাথে পৈত্রিক ওয়ারিশি সম্পত্তি নিয়ে তর্ক-বিতর্ক হয়। পরে স্থানীয় ভাবে বিষয়টি মিলমিশ করে দেওয়া পরও উদ্দেশ্য প্রণোদিভাবে ১৫ ডিসেম্বর আসিকুল হক সুখন বাদী হয়ে ফজলুল করিম ও ফজলুল হক সবুজ বিবাদী করে কমলনগর থানায় মিথ্যা ও ষড়যন্ত্রমূলক মামলা দায়ের করেন। এবং পারিবারিক বিষয়ে কেন্দ্র করে তোয়াহা স্মৃতি বালিকা বিদ্যালয় ছাত্রীদের দিয়ে স্কুলের প্রধান শিক্ষক ও সভাপতি নিয়ম বহির্ভূতভাবে আমাদের নামে মিথ্যা অপবাদ দিয়ে মানববন্ধনের আয়োজন করেন।
তিনি আরোও বলেন তারা আমাদের বিরুদ্ধে স্কুল সভাপতি আবুল খায়ের কে প্রাণনাশের হুমকি যে অভিযোগ করেছেন তা মিথ্যা। কারণ ঐদিন ঘটনাস্থলে ওনি ছিলেন না।
প্রকৃত পক্ষে আমাদের কে মানহানি ও হয়রানি করতে স্কুল সভাপতির ছেলে সূখন নেশাগ্রস্থ অবস্থায় ৫০/৬০ জন লোক নিয়ে হাজির হাট বাজারে আমাদের পরিবারের নামে গালমন্দ ও পিস্তল দিয়ে গুলি করে খুন করার হুমকি সহ মারধর করেন।
আমাদের বিরুদ্ধে ছাত্রীদের দিয়ে মানববন্ধন আয়োজন কারী প্রধান শিক্ষক একেএম জাহেদ বিল্লাহ নিজেই দূর্নীতিবাজ তিনি তোয়াহা স্মৃতি বালিকা বিদ্যালয় মালিকানাধীন সম্পত্তির উপর টাকা নিয়ে দোকান ঘর নির্মান করে ভাড়া দিয়ে থাকেন। যাহা স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সংসদীয় স্থায়ী কমিটির গৃহীত সিন্ধান্ত বাস্তবায়নের নিদের্শনা গেজেটর চিঠি মোতাবেক সম্পর্ণ অবৈধ ও আইন পরিপন্থি। এবং প্রধান শিক্ষক জাহেদ বিল্লাহ বিদ্যালয়ের সভাপতি সাহেবের যোগসাজশে খন্ডকালীন শিক্ষক, কর্মচারী নিয়োগ বাণিজ্যসহ অর্থ হাতিয়ে নেন।

পরিশেষে দায়িত্বশীল প্রধান শিক্ষক হয়ে নিয়ম বহির্ভূত কর্মকান্ড ও আমাদের নাম মিথ্যাসহ অপপ্রচারের তীব্র নিন্দা জানাই এবং মামলা প্রত্যাহার দাবী জান্নাচ্ছি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ