বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর ২০২২, ০৮:১৭ পূর্বাহ্ন
বিশেষ ঘোষণাঃ
• করোনাভাইরাস প্রতিরোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন, টিকা নিন। • গুজব নয়, সঠিক সংবাদ জানুন। • দেশের কিছু জেলা, উপজেলা, গুরুত্বপূর্ণ স্থান এবং বিশ্বের কয়েকটি দেশের গুরুত্বপূর্ণ শহরে (খালি থাকা সাপেক্ষে) প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। • আপনি কি কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে 'ফিল্ম ও মিডিয়া, গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা' বিষয়ে পড়ছেন? বাংলাদেশ প্রতিবেদন আপনাকে দিচ্ছে 'ইন্টার্নশিপ'-এর সুযোগ। • আপনিও হতে পারেন সাংবাদিক! চলতি পথে নানা অসঙ্গতি, দুর্নীতি, কারো সফলতা বা যেকোনো ভিন্নধর্মী খবর (ছবি অথবা ভিডিও) পাঠাতে পারেন। • হটলাইনঃ +৮৮০ ১৯ ০৯ ৮৬ ২৬ ১৬ (হোয়াটসঅ্যাপ), • ই-মেইলঃ protibedonbd@gmail.com • গুগল, ফেসবুক ও ইউটিউবে আমাদের পেতে Bangladesh Protibedon লিখে সার্চ দিন।

বিয়ের প্রস্তাব নাকচ, প্রেমিককে চুমু খেয়ে গুলি চালালো প্রেমিকা

বাংলাদেশ প্রতিবেদন
প্রকাশকালঃ বৃহস্পতিবার, ১৬ ডিসেম্বর, ২০২১

বিয়ের প্রস্তাব নাকচ, প্রেমিককে চুমু খেয়ে গুলি চালালো প্রেমিকা।

মাসুদুর রহমান:

বিয়ের প্রস্তাব নাকচ করে প্রেমিকার উপর হামলার ঘটনা অহরহ। কিন্তু এবার যে উল্টাপুরান। প্রেমিক বিয়ে করতে রাজি না হওয়ায় গুলি চালালো প্রেমিকা। এর জেরে চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয় বর্ধমানের কাটোয়া শহরের সার্কাস ময়দান এলাকায়।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, প্রেমিকা মনীষা খাতুন ফোন করে রাত্রি সাড়ে আটটা নাগাদ কাটোয়ার সার্কাস ময়দানের একটি গলিতে প্রেমিককে ডাকেন। কিছুক্ষণ তাঁদের কথাবার্তা হয়। সেখান থেকে কথা কাটাকাটি। প্রেমিকের গালে চুম্বন দিয়েই ওড়নার পিছন থেকে ওয়ান শাটার বন্দুক বার কর প্রেমিকের বুকে বন্দুক ঠেকিয়ে গুলি করতে উদ্যত হন তিনি।

এদিকে প্রেমিক ঝটকা দিয়ে পালানোর চেষ্টা করলে মনীষা লাল চাঁদ নামে ওই যুবককে কে লক্ষ্য করে একটি গুলি চালায়। গুলি গিয়ে প্রেমিকের জ্যাকেট ফুটো করে পেট ঘেঁষে বেরিয়ে যায় সেই বুলেট। অল্পের জন্য বেঁচে যান লাল চাঁদ। এদিকে সঙ্গে সঙ্গেই বেপাত্তা হয়ে যান প্রেমিকা। গুলির শব্দে চমকে ওঠেন আশেপাশের মানুষ। উদ্ধার করা হয় যুবককে। ঘটনার খবর পেয়ে কাটোয়া থানার পুলিশ এসে প্রেমিক লাল চাঁদকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে। সেখানে তাঁর প্রাথমিক চিকিত্‍সা হয়। আপাতত শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল বলে খবর।

মণীষাকে পুলিশ গ্রেফতারের পর লালচাঁদের ব্যাখ্যা, তাঁদের মধ্যে গত এক বছর ধরে সম্পর্কের অবনতি ঘটেছিল। লালচাঁদ বিয়ে ভেঙে দিয়েছিলেন। মণীষার পরিবারের তরফে অন্যত্র নাকি বিয়ে ঠিক করা হয়েছিল। সেই ছেলেটির সঙ্গে ফোনে কথা বলতেন মণীষা। লালচাঁদ তা নিয়ে আপত্তি জানিয়েছিলেন। এদিকে, আবার কাজের নাম করে ঝাড়খণ্ড চলে গিয়েছিলেন মণীষা। লালচাঁদ খোঁজ নিয়ে জানতে পারেন, মণীষা আসলে সেখানে নাচ করতেন। মঞ্চে দাঁড়িয়ে নাচ করার বিষয়টি মেনে নিয়ে পারেননি লালচাঁদ। জানা গিয়েছে, কাটোয়ার কেশিয়া মাঠপাড়া যুবক লাল চাঁদ শেখ এর সঙ্গে বাগানে পাড়ার মনীষা খাতুনের প্রায় তিন বছরের ভালোবাসার সম্পর্ক। সূত্রের খবর, পণের দাবি পূরণ না হওয়ায় বিয়ে করতে রাজী হননি প্রেমিক লালচাঁদ। যদিও লাল চাঁদ জানিয়েছে, প্রেমিকার সঙ্গে অন্য কারও সম্পর্ক ছিল, তাই তিনি সরে এসেছিলেন। এর পর গত এক বছর আগে কাটোয়া ছেড়ে চলে যান প্রেমিকা। এখন তিনি ঝাড়খণ্ডে থাকতেন। তবে গত মঙ্গলবার রাত্রে ঝাড়খণ্ড থেকে কাটোয়ার বাড়িতে ফিরে আসেন মনীষা। প্রেমিক লালচাঁদের অভিযোগ, বুধবার রাত সাড়ে আটটার সময় মনীষা তাঁকে সার্কাস ময়দানের একটি গলিতে দেখা করতে বলেন। এখানেই পরিকল্পনা মাফিক গুলি চালান হয়। অন্য দিকে মেয়ের পরিবারের দাবি, প্রেমিকের সঙ্গে সম্পর্ক রাখতে চাননি মনীষা। তাঁকে বরং জবরদস্তি করে লাল চাঁদ। লালের কাছেই কাছেই ছিল বন্দুক। কোনও ভাবে সেখান থেকেই গুলি বেরিয়ে যায়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ