বৃহস্পতিবার, ১১ অগাস্ট ২০২২, ০১:৪৬ অপরাহ্ন
বিশেষ ঘোষণাঃ
• করোনাভাইরাস প্রতিরোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন, টিকা নিন। • গুজব নয়, সঠিক সংবাদ জানুন। • দেশের কিছু জেলা, উপজেলা, গুরুত্বপূর্ণ স্থান এবং বিশ্বের কয়েকটি দেশের গুরুত্বপূর্ণ শহরে (খালি থাকা সাপেক্ষে) প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। • আপনি কি কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে 'ফিল্ম ও মিডিয়া, গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা' বিষয়ে পড়ছেন? বাংলাদেশ প্রতিবেদন আপনাকে দিচ্ছে 'ইন্টার্নশিপ'-এর সুযোগ। • আপনিও হতে পারেন সাংবাদিক! চলতি পথে নানা অসঙ্গতি, দুর্নীতি, কারো সফলতা বা যেকোনো ভিন্নধর্মী খবর (ছবি অথবা ভিডিও) পাঠাতে পারেন। • হটলাইনঃ +৮৮০ ১৯ ০৯ ৮৬ ২৬ ১৬ (হোয়াটসঅ্যাপ), • ই-মেইলঃ protibedonbd@gmail.com • গুগল, ফেসবুক ও ইউটিউবে আমাদের পেতে Bangladesh Protibedon লিখে সার্চ দিন।

দীর্ঘ ২০ মাস পর ফের চালু হলো লুমিনারি’র কার্যক্রম, উচ্ছ্বসিত শিক্ষার্থীরা

বাংলাদেশ প্রতিবেদন
প্রকাশকালঃ শুক্রবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০২১

দীর্ঘ ২০ মাস পর ফের চালু হলো লুমিনারি’র কার্যক্রম, উচ্ছ্বসিত শিক্ষার্থীরা।

নোবিপ্রবি সংবাদদাতাঃ

মহামারী করোনা ভাইরাসের কারণে দীর্ঘ ২০ মাস বন্ধ থাকার পর ফের চালু হয়েছে সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের বিনামূল্যে পাঠদানে নিয়োজিত নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের(নোবিপ্রবি) শিক্ষার্থীদের দ্বারা পরিচালিত স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘লুমিনারি’ এর কার্যক্রম।

শুক্রবার(৩ ডিসেম্বর) বেলা ৩টা থেকে শুরু হয়ে ৫টা পর্যন্ত চলে করোনা পরবর্তী প্রথম দিনের শিক্ষা কার্যক্রম। এতে ব্যাপক উৎসাহের সঙ্গে অংশ নেয় প্রায় ৭৮ জন সুবিধাবঞ্চিত শিশু শিক্ষার্থী।

এদিকে করোনার দীর্ঘ সময় পর পাঠদান করতে এসে উচ্ছ্বসিত শিক্ষার্থীরা। সপ্তম শ্রেণীর শিক্ষার্থী সালেহা বেগম বলেন, দীর্ঘদিন পর পড়তে এসেছি ভাইয়া-আপুদের কাছে। খুব ভালো লাগছে৷

ষষ্ঠ শ্রেণিতে অধ্যয়নরত মারজাহান নামের আরেক শিক্ষার্থী বলেন, করোনার কারণে দীর্ঘদিন আমরা বাসায় ছিলাম। লুমিনারি আবার চালু হওয়ার কারণে আবার আমরা পড়তে এসেছি। নিয়মিত পড়ানোর পাশাপাশি কিভাবে ভালো একজন মানুষ হওয়া যায় সে বিষয়গুলোও লুমিনারির ভাইয়া-আপুরা আমাদের শেখান।

সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক শামীম তাজ বলেন, করোনা মহামারীর কারণে গত ২০ মাস লুমিনারির কার্যক্রম বন্ধ ছিলো। আজ আবার পুনরায় কার্যক্রম শুরু হয়েছে আমাদের। বেশ উৎসাহের সঙ্গে আজকের কার্যক্রমে শিক্ষার্থীরা অংশ নিয়েছে। শিক্ষার্থীদের কাছে পেয়ে আনন্দিত আমরাও।

উল্লেখ্য, বিশ্ববিদ্যালয়ের পার্শ্ববর্তী এলাকার সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের মানসিক বিকাশ সাধন ও সুন্দর ভবিষ্যত গড়ার উদ্দেশ্য নিয়ে ‘প্রতিটি শিশু মানুষ হোক আলোর ঝর্ণাধারায়’ স্লোগানে
লুমিনারির যাত্রা শুরু হয়। সংগঠনটি পরিচালনা করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের বেশ কয়েকজন শিক্ষার্থী। শিশুদের বিনামূল্যে পাঠদানের পাশাপাশি খেলাধুলা, বিনোদন, উপহার ও খাবার বিতরণ করে থাকে সংগঠনটি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ