বুধবার, ১৭ অগাস্ট ২০২২, ০১:১৯ অপরাহ্ন
বিশেষ ঘোষণাঃ
• করোনাভাইরাস প্রতিরোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন, টিকা নিন। • গুজব নয়, সঠিক সংবাদ জানুন। • দেশের কিছু জেলা, উপজেলা, গুরুত্বপূর্ণ স্থান এবং বিশ্বের কয়েকটি দেশের গুরুত্বপূর্ণ শহরে (খালি থাকা সাপেক্ষে) প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। • আপনি কি কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে 'ফিল্ম ও মিডিয়া, গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা' বিষয়ে পড়ছেন? বাংলাদেশ প্রতিবেদন আপনাকে দিচ্ছে 'ইন্টার্নশিপ'-এর সুযোগ। • আপনিও হতে পারেন সাংবাদিক! চলতি পথে নানা অসঙ্গতি, দুর্নীতি, কারো সফলতা বা যেকোনো ভিন্নধর্মী খবর (ছবি অথবা ভিডিও) পাঠাতে পারেন। • হটলাইনঃ +৮৮০ ১৯ ০৯ ৮৬ ২৬ ১৬ (হোয়াটসঅ্যাপ), • ই-মেইলঃ protibedonbd@gmail.com • গুগল, ফেসবুক ও ইউটিউবে আমাদের পেতে Bangladesh Protibedon লিখে সার্চ দিন।

কক্সবাজার লাইটহাউজ পাড়ায় তিনটি কটেজে ট্যুরিস্ট পুলিশের অভিযান!

বাংলাদেশ প্রতিবেদন
প্রকাশকালঃ বৃহস্পতিবার, ২ ডিসেম্বর, ২০২১

কক্সবাজার প্রতিনিধি।।

কক্সবাজার শহরের লাইটহাউজ পাড়াস্থ কটেজ জোনে তিনটি কটেজে ট্যুরিস্ট পুলিশের রহস্য ঘেরা ঝটিকা অভিযান চালানো হয়েছে!
তবে অভিযানে কেউ আটক হয়নি। ২ ডিিসেম্বর বৃহস্পতিবার রাত ৮টার দিকে কক্সবাজার ট্যুরিস্ট পুলিশের
ইন্সপেক্টর কামরুজ্জামানের নেতৃত্বে সাদা ও পোষাকধারী
একদল পুলিশ এ অভিযান চালায়। এতে করে পর্যটকদের মাঝে আতংকের সৃষ্টি হয়েছে।
স্থানীয়রা জানান, বৃহস্পতিবার রাত ৮টার দিকে কক্সবাজার ট্যুরিস্ট পুলিশ কক্সবাজার রিজিয়নের ইন্সপেক্টর কামরুজ্জামান (সাদা পোষাকধারী) এর নেতৃত্বে এসআই এরশাদসহ ৭/৮ জনের একদল ট্যুরিস্ট পুলিশ সাদা ও পুলিশ পোশাকে লাইটহাউজ পাড়াস্থ কটেজ জোনের ঢাকার বাড়ী-১, ঢাকার বাড়ী-১ ও বৃহস্পতিবার বিকালে চালু করা রহিমের নতুন কটেজে হানা দেয়। নতুন চালু করা কটেজ ও ঢাকার বাড়ী-১ও২ এ তল্লাশী চালানো হয়।
বৃহস্পতিবার বিকালে নতুন চালু করা কটেজের বিভিন্ন কক্ষ খুলে তল্লাশী করলেও কোন বর্ডার পাননি। তবে ঢাকা বাড়ী-২ নামের বির্তকিত কটেজে বেশ কিছু খদ্দর ও নারী ( নগরবধূ) পেলেও তাদের আটক করে নিয়ে যাননি।
ইন্সপেক্টর কামরুজ্জামানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, এটা কোন অভিযান নয়। পর্যটন এলাকায় অপরাধ সংগঠিত হওয়ার আগে তা প্রতিরোধের জন্য পূর্ব প্রস্তুতি নিয়ে পুলিশের মহড়া।
ট্যুরিস্ট পুলিশ কক্সবাজার রিজিয়নের পুলিশ সুপার (এসপি) জিল্লুর রহমান বলেন, ট্যুরিস্ট পুলিশের কোন অভিযান চলেনি। তবে নিয়মিত টহল জোরদার করছে।
তিনি বলেন, আমি বর্তমানে ঢাকায় অবস্থান করছি, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মহিউদ্দিনের সাথে কথা বলে বিস্তারিত খবর নেওয়ার অনুরোধ করেন তিনি।
ব্যবসায়ীদের মতে, লাইটহাউস এলাকায় রহিম নতুন একটি কটেজ উদ্বোধন করা হয় বৃহস্পতিবার বিকালে। ওই কটেজেসহ তিনটি কটেজে সন্ধ্যার পর অভিযান চালানো রহস্য জনক।
নতুন চালু করা কটেজে রুম খুলে খুলে তল্লাশী চালালেও কোন বর্ডার পাননি। তবে অন্য কটেজগুলোতে বেশ কিছু নারী ও খদ্দের পেলেও তাদের আটক করেনি। এধরনের রহস্যজনক অভিযানে পর্যটকদের মাঝে আতংক বিরাজ করছে। অনেক পর্যটক ভযে এলাকা ছেড়েছে।
তবে, অনেকের অভিযোগ, ঢাকা বাড়ী ১ও ২ এ সার্বক্ষণিক অন্তত ৫০ জন করে নগরবধূ রাখা হয়। পতিতাদের আখড়াগুলো থেকে বিভিন্ন হোটেল ও কটেজে এসব নারী ঘন্টা হিসেবে সরবরাহ দিয়ে আসছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ