বুধবার, ১৭ অগাস্ট ২০২২, ০১:০৭ অপরাহ্ন
বিশেষ ঘোষণাঃ
• করোনাভাইরাস প্রতিরোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন, টিকা নিন। • গুজব নয়, সঠিক সংবাদ জানুন। • দেশের কিছু জেলা, উপজেলা, গুরুত্বপূর্ণ স্থান এবং বিশ্বের কয়েকটি দেশের গুরুত্বপূর্ণ শহরে (খালি থাকা সাপেক্ষে) প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। • আপনি কি কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে 'ফিল্ম ও মিডিয়া, গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা' বিষয়ে পড়ছেন? বাংলাদেশ প্রতিবেদন আপনাকে দিচ্ছে 'ইন্টার্নশিপ'-এর সুযোগ। • আপনিও হতে পারেন সাংবাদিক! চলতি পথে নানা অসঙ্গতি, দুর্নীতি, কারো সফলতা বা যেকোনো ভিন্নধর্মী খবর (ছবি অথবা ভিডিও) পাঠাতে পারেন। • হটলাইনঃ +৮৮০ ১৯ ০৯ ৮৬ ২৬ ১৬ (হোয়াটসঅ্যাপ), • ই-মেইলঃ protibedonbd@gmail.com • গুগল, ফেসবুক ও ইউটিউবে আমাদের পেতে Bangladesh Protibedon লিখে সার্চ দিন।

২৯ বছর অপেক্ষা : এমপিও’র দাবীতে অনার্স-মাস্টার্স শিক্ষকদের জাবি’র প্রধান ফটকে অবস্থান 

মোহাম্মদ মনজুরুল হক গাজী, গাজীপুর।
প্রকাশকালঃ মঙ্গলবার, ৩০ নভেম্বর, ২০২১

২৯ বছর অপেক্ষা : এমপিও’র দাবীতে অনার্স-মাস্টার্স শিক্ষকদের জাবি’র প্রধান ফটকে অবস্থান 

বাংলাদেশ বেসরকারি অনার্স-মাস্টার্স শিক্ষক ফেডারেশনের সদস্যগণ  মঙ্গলবার (৩০ সেপ্টেম্বর) সকালে এমপিও  ভুক্তির দাবীতে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের গেটের সমুখে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছে। এ সময় দেশের বিভিন্ন বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে বিপুল সংখ্যক শিক্ষক  বিভিন্ন দাবি সম্বলিত ব্যানার প্লেকার্ড হাাতে নিয়ে অবস্থান কর্মসূচি পালন করতে দেখা যায়।  ফেডারেশনের সভাপতি হারুন -অর রশিদ বলেন,  বেসরকারি কলেজসমূহে বিধিমোতাবেক নিয়োগ প্রাপ্ত সারাদেশে ৫৫০০ জন অনার্স-মাস্টার্স শিক্ষককে জনবলের অন্তর্ভুক্ত না থাকার অজুহাতে দীর্ঘ ২৯ বছর সরকারি সুযোগ-সুবিধার (এম,পি ও) বাইরে রাখা হয়েছে। প্রতিষ্ঠান থেকে শতভাগ বেতন দেওয়ার কথা থাকলেও অধিকাংশ কলেজ কর্তৃপক্ষ তা আমলে নেয় না। করোনাকালে প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় প্রতিষ্ঠান থেকে প্রদত্ত নামমাত্র বেতনটুকু বন্ধ থাকায় শিক্ষকগণ জীবন-জীবিকার কঠিন সমীকরণে আটকে গেছে। একই প্রক্রিয়ায় সদ্য জাতীয়করণকৃত কলেজে অনার্স মাস্টার্স কোর্সের শিক্ষকগণ ক্যাডার নন ক্যাডার ভুক্ত হয়েছেন। ডিগ্রি তৃতীয় শিক্ষকগণ জনবলে না থাকার পরেও এমপিওভুক্ত হয়েছেন। অন্যদিকে কামিল শ্রেণির শিক্ষকগণ এমপিওভুক্ত হয়েছেন। অথচ অনার্স মাষ্টার্স  শিক্ষকগণ এনটিআরসিএ সনদধারী হয়েও এমপিও নীতিমালায় অন্তর্ভুক্ত না থাকায় এমপিওভুক্ত হতে পারছেন না। যা চরম বৈষম্য এবং মুক্তিযুদ্ধের চেতনার পরিপন্থী। ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফা কামাল বলেন,  দীর্ঘ ২৯ বছর থেকে পেশাগত দাবী আদায়ের জন্য অনেক শান্তিপূর্ণ আন্দোলন করার পরেও তারা অদ্যাবধি  সরকারি বেতন ভাতা থেকে বঞ্চিত রয়েছে। তিনি আরও জানান, সর্বজন স্বীকৃত সত্য যে, বর্তমান সরকারের মাধ্যমে শিক্ষার বৈষম্য কমেছে কিন্তু অত্যন্ত পরিতাপের বিষয় উচ্চশিক্ষিত ৫৫০০জন শিক্ষক এখনও এমপিওভুক্তির বাহিরে রয়েছেন।অবশ্যই এ সকল শিক্ষকদের এমপিও ভুক্ত করতে হবে। সংগঠনের উপদেষ্টা পূবাইল আদর্শ বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের শিক্ষক সুকোমল সেন বলেন, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের বিধি মোতাবেক ব্যবস্থা গ্রহণের একাধিক  নির্দেশ, নবম ও দশম সংসদের স্থায়ী কমিটি সুপারিশ এবং জাতীয় শিক্ষানীতি ২০১০ এ অধ্যায় ৮ এ বর্ণিত উচ্চ শিক্ষার কৌশল বাস্তবায়নের জন্য শিক্ষকের এমপিওভুক্তি করা অত্যন্ত যৌক্তিক ছিল। এমতাবস্থায় অনতিবিলম্বে ৫৫০০ জন কর্মরত অনার্স মাস্টার্স শিক্ষকদের এমপিও ভুক্তির জোর দাবী জানাচ্ছি। অন্যথায় দাবী আদায়ের জন্য তারা শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি অব্যাহত রাখবেন বলে ঘোষণা করেন। এছাড়াও বক্তব্য রাখেন  জাহিদুল ইসলামসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ