বুধবার, ১৭ অগাস্ট ২০২২, ০১:০৬ অপরাহ্ন
বিশেষ ঘোষণাঃ
• করোনাভাইরাস প্রতিরোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন, টিকা নিন। • গুজব নয়, সঠিক সংবাদ জানুন। • দেশের কিছু জেলা, উপজেলা, গুরুত্বপূর্ণ স্থান এবং বিশ্বের কয়েকটি দেশের গুরুত্বপূর্ণ শহরে (খালি থাকা সাপেক্ষে) প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। • আপনি কি কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে 'ফিল্ম ও মিডিয়া, গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা' বিষয়ে পড়ছেন? বাংলাদেশ প্রতিবেদন আপনাকে দিচ্ছে 'ইন্টার্নশিপ'-এর সুযোগ। • আপনিও হতে পারেন সাংবাদিক! চলতি পথে নানা অসঙ্গতি, দুর্নীতি, কারো সফলতা বা যেকোনো ভিন্নধর্মী খবর (ছবি অথবা ভিডিও) পাঠাতে পারেন। • হটলাইনঃ +৮৮০ ১৯ ০৯ ৮৬ ২৬ ১৬ (হোয়াটসঅ্যাপ), • ই-মেইলঃ protibedonbd@gmail.com • গুগল, ফেসবুক ও ইউটিউবে আমাদের পেতে Bangladesh Protibedon লিখে সার্চ দিন।

বাবা উপজেলা চেয়ারম্যান ও দুই ছেলে দুই ইউপি চেয়ারম্যান

বাংলাদেশ প্রতিবেদন
প্রকাশকালঃ মঙ্গলবার, ৩০ নভেম্বর, ২০২১

বাবা উপজেলা চেয়ারম্যান ও দুই ছেলে দুই ইউপি চেয়ারম্যান।

আপন সরদার:

মুন্সীগঞ্জের টঙ্গীবাড়ী উপজেলার মাইলফলক বাবা উপজেলা চেয়ারম্যান ও দুই ছেলে দুই ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। যা এর আগে কখনোই হয়নি।

টঙ্গীবাড়ী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব জগলুল হালদার ভুতু ২০১৯ ইং সালের ৩১ মার্চ স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে ১২ হাজার ৯৮৮ ভোটের ব্যবধানে উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হোন।

এদিকে গেলো ২৮ নভেম্বর ২০২১ ইং অনুষ্ঠিত হয়ে যাওয়া ৩য় ধাপের ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে বড় ছেলে মোঃ আরিফ হাওলাদার নৌকা প্রতিক নিয়ে টানা ৩য় বার দিঘিরপাড় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। এই নির্বাচনে আরিফ হাওলাদার নৌকা প্রতিক নিয়ে পান ৩০৩৬ ভোট ও তার প্রতিপক্ষ আনারস প্রতিকের শামীম মোল্লা পান ২৩২৫ ভোট।

একই দিনে একই উপজেলার কামারখাড়া ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে ছোট ছেলে লুতফর হালদার খুকু বিশাল ব্যবধানে নৌকা প্রতিকের প্রার্থী মহিদ্দিন হালদার কে পরাজিত করেন। এই ইউনিয়নে লুতফর হালদার খুকু পান ৬৪১৬ ভোট এবং প্রতিপক্ষ মহিউদ্দিন হালদার পান ২৫৯৩ ভোট।

একই উপজেলার বাবা উপজেলা চেয়ারম্যান, দুই ছেলে দুই ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচিত হওয়ায় জনমুখে ভুতু হালদার জনপ্রিয়তার প্রশংসায় পঞ্চমুখ হয়েছেন।

এ বিষয়ে জগলুল হালদার ভুতু বলেন, জনগন আমাকে এবং আমার পরিবারকে ভালোবাসে বলেই আমাদের এই অর্জন অর্জিত হয়েছে। টঙ্গীবাড়ীবাসী আমাদের কে আবারো ঋণী করে দিলো। জনগনের এই ভালোবাসা কখনোই ভুলতে পারবোনা।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ