শনিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২৩, ১২:৩২ পূর্বাহ্ন
বিশেষ ঘোষণাঃ
• করোনাভাইরাস প্রতিরোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন, টিকা নিন। • গুজব নয়, সঠিক সংবাদ জানুন। • দেশের কিছু জেলা, উপজেলা, গুরুত্বপূর্ণ স্থান এবং বিশ্বের কয়েকটি দেশের গুরুত্বপূর্ণ শহরে (খালি থাকা সাপেক্ষে) প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। • আপনি কি কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে 'ফিল্ম ও মিডিয়া, গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা' বিষয়ে পড়ছেন? বাংলাদেশ প্রতিবেদন আপনাকে দিচ্ছে 'ইন্টার্নশিপ'-এর সুযোগ। • আপনিও হতে পারেন সাংবাদিক! চলতি পথে নানা অসঙ্গতি, দুর্নীতি, কারো সফলতা বা যেকোনো ভিন্নধর্মী খবর (ছবি অথবা ভিডিও) পাঠাতে পারেন। • হটলাইনঃ +৮৮০ ১৯ ০৯ ৮৬ ২৬ ১৬ (হোয়াটসঅ্যাপ), • ই-মেইলঃ protibedonbd@gmail.com • গুগল, ফেসবুক ও ইউটিউবে আমাদের পেতে Bangladesh Protibedon লিখে সার্চ দিন।

রামগঞ্জে নৌকার সমর্থিত প্রার্থীর নির্বাচনী অফিস ভাংচুর, হামলা ও মারধরসহ আহত ১০

বাংলাদেশ প্রতিবেদন
প্রকাশকালঃ শনিবার, ২০ নভেম্বর, ২০২১

 

রামগঞ্জে নৌকার সমর্থিত প্রার্থীর নির্বাচনী অফিস ভাংচুর
হামলা ও মারধরসহ আহত ১০

নাজিম উদ্দিন রানাঃ লক্ষ্মীপুর রামগঞ্জে নৌকার মার্কার প্রার্থীর নির্বাচনী অফিস ভাংচুর ও হামলার ঘটনা ঘটেছে। এসময় হামলায় ৫ টি মোটর সাইকেলসহ উভয় পক্ষের ১০ জন আহত হয়। শনিবার দুপুরে রাতে রামগঞ্জ উপজেলার ভাদুর ইউনিয়নের পূর্ব ভাদুর রাজারামপুর এলাকায় পৃথক এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর রামগঞ্জ থানার ওসি ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করেছেন।
স্থানীয়রা জানান, ভাদুর ইউনিয়নের পূর্ব ভাদুর রাজারামপুর এলাকায় সিএনজি চালিত অটোরিকসা যোগে একদল দুবৃর্ত্ত এসে নৌকার মার্কার নির্বাচনী অফিস ভাংচুর করেন। এসময় আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী মোহাম্মদ জাবেদের সমর্থিতরা বাধাদিলে বিদ্রোহী প্রার্থী জাহিদ হোসেনের সমর্থকরা মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। এসময় উভয় পক্ষের ১০ জন আহত হয়। স্থানীয়রা আহত সবুজ হোসেন,কামরুল,মোহাম্মদ,মামুন,সিহাব,দেলু,বাবুল,সুমন ও সিরাজসহ ১০ জনকে রামগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্যকম্পক্য্র এ ভর্তি করেন।
এদিকে ভাদুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মো: শরিফ হোসেন জানান,নৌকা মার্কা নিয়ে শান্তিপূর্ণ ভোট করতে চান তারা। বিদ্রোহী প্রার্থীর পক্ষে সন্ত্রাসীরা অবস্থান নিয়ে একের গোলাগুলিসহ পর এক কর্মকান্ড করে আসছে। এতে করে ভোটারা আতংকিত হচ্ছে। এছাড়া ভোটে হেরে যাওয়ার ভয়ে বিদ্রোহী প্রার্থী সমর্থকরা শনিবারও নৌকা মার্কার নির্বাচন অফিস ভাংচুর করছে।এসব কিসের ইঙ্গিত বলে জানায় এ ছাত্রলীগ নেতা।
অপরদিকে ভাদুর ইউনিয়ন যুবলীগ আহবায়ক মোঃ জাহাঙ্গীর আলম জানান,বিদ্রোহী প্রার্থী জাহিদ হোসেনের সমর্থকরা কয়েকটি সিএনজি যোগে এসে নৌকার অফিস ভাংচুর ও হামলা করে। এসময় নৌকা সমর্থিত ৬ জন নেতাকর্মী আহত হয়। তাদের স্থানীয়রা উদ্ধার করে রামগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কম্পেলেক্য্র ভর্তি করেন।

বর্তমান চেয়ারম্যান ভাদুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান ও বিদ্রোহী র্(মার্কা আনারস) প্রাথী মো: জাহিদ হোসেন, জানান, তিনি তার কর্মী সমর্থকরা নৌকা মার্কার অফিস ভাংচুর করেন নাই। নৌকা মার্কার প্রার্থী সমর্থিতরা নিজেরা এসব ঘটনা করে। তাকে ভোটের মাঠ থেকে সড়াতে পায়তারা করছেন। সত্যিতা কি ? তা তদন্ত করলে বেড়িয়ে আসবে বলে মনে করছেন তিনি।

পুলিশ সুপার ড. এএইচএম কামরুজ্জামান জানান, কোন প্রার্থী যদি মনের করেন কারো নিকট অস্ত্র এমন নিদিষ্ট ব্যাক্তি সম্পর্কে অবহিত করলে পুলিশ তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহন করবে। সব সময় নির্বাচনের আগে অভিযান চলমান আছে। এছাড়া নির্বাচনে কেউ যামেলা করতে চায় তাদের উপর নজর আছে। যদি কেউ নির্বাচনে জামেলা করবে। এমন ব্যাক্তিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ