শুক্রবার, ২৭ মে ২০২২, ০৭:০৭ অপরাহ্ন
বিশেষ ঘোষণাঃ
• করোনাভাইরাস প্রতিরোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন, টিকা নিন। • গুজব নয়, সঠিক সংবাদ জানুন। • দেশের কিছু জেলা, উপজেলা, গুরুত্বপূর্ণ স্থান এবং বিশ্বের কয়েকটি দেশের গুরুত্বপূর্ণ শহরে (খালি থাকা সাপেক্ষে) প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। • আপনি কি কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে 'ফিল্ম ও মিডিয়া, গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা' বিষয়ে পড়ছেন? বাংলাদেশ প্রতিবেদন আপনাকে দিচ্ছে 'ইন্টার্নশিপ'-এর সুযোগ। • আপনিও হতে পারেন সাংবাদিক! চলতি পথে নানা অসঙ্গতি, দুর্নীতি, কারো সফলতা বা যেকোনো ভিন্নধর্মী খবর (ছবি অথবা ভিডিও) পাঠাতে পারেন। • হটলাইনঃ +৮৮০ ১৯ ০৯ ৮৬ ২৬ ১৬ (হোয়াটসঅ্যাপ), • ই-মেইলঃ protibedonbd@gmail.com • গুগল, ফেসবুক ও ইউটিউবে আমাদের পেতে Bangladesh Protibedon লিখে সার্চ দিন।

কলাতলি ওয়ার্ল্ড বীচ রিসোর্টে ছুরিকাহত-২, হাজী দেলোয়ারসহ আটক-৪

নিজস্ব বার্তা প্রতিবেদক
প্রকাশকালঃ মঙ্গলবার, ৯ নভেম্বর, ২০২১

শাহজাহান চৌধুরী শাহীন, কক্সবাজার।।

কক্সবাজার শহরের কলাতলি ডলফিন মোড়স্থ ওয়ার্ল্ড বীচ রিসোর্টে ল্যান্ড ওনারদের কাছ থেকে জোরপূর্বক অলিখিত খালী স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর আদায় কালে ২ জন ছুরিকাহতসহ ৩ জন আহত হয়েছে।
এঘটনায় ওয়ার্ল্ড বীচ রিসোর্টের ডেভেলপার হাজী দেলোয়ার হোসেনসহ ৪ জনকে আটক করেছে কক্সবাজার সদর মডেল থানা পুলিশ।
সোমবার ৮ নভেম্বর রাত সাড়ে ৮ টার দিকে এ ঘটনা ঘটেছে। এব্যাপারে আহত নুরুল আলম বাদী হয়ে ১১ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতনামাসহ ১৩ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, কলাতলি ডলফিন মোড়স্থ ১৩ তলা বিশিষ্ট ওয়ার্ল্ড বীচ রিসোর্টের মালিকানা নিয়ে ডেভেলপার হাজী দেলোয়ার হোসেন ও ল্যান্ড ওনার এড. নুরুল আলম গংদের মধ্যে বিরোধ চলে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় ওয়ার্ল্ড বীচ রিসোর্টের নীচতলায় রিসিপশনের পেছনে হাজী দেলোয়ার হোসনের অফিস কক্ষে তিনজনকে মারধর ও ছুরিকাঘাতের ঘটনা ঘটে।
ছুরিকাহতরা হলেন, এড. নুরুল আলমের ছেলে এড.আশরাফুল আলম ও ছোট ভাই মনছুর আলম। এসময় ছুরিকাঘাতে আহতদের উদ্ধার করতে গিয়ে এড. নুরুল আলমও হামলার শিকার হয়েছে।
আহত এড. নুরুল আলম জানাম, চুক্তি অনুযায়ী ডেভেলপার হাজী দেলোয়ার আনুপাতিক হারে ফ্ল্যাট ও পার্কি বুঝিয়ে দেওয়ার জন্য আমাদের কাছ থেকে ২০ লাখ টাকা চাঁদা দাবী করে আসছিল।
সোমবার ৮ নভেম্বর রাত সাড়ে ৮ টার দিকে
ফ্ল্যাট ও পার্কি বুঝিয়ে দেওয়ার কথা বলে হাজী দেলোয়ারের অফিসে আমার ছেলেকে ও ভাই মনছুর আলমকে ডেকে নিয়ে যায়। সেখানে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ভাই মনছুর আলমের কাছ থেকে তিনশত টাকা দামের ননজুডিশিয়াল স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর আদায় কালে ছেলল আশরাফ প্রতিবাদ করে। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে তারা দুজনকে বেদম মারধর ও ছুরিকাঘাত করা হয়।
তিনি বলেন, ছেলে ও ভাইয়ের চিৎকারে শুনে আমি এগিয়ে গেলে আমাকেও মারধর করা হয়।
ঘটনার বিষয়ে পুলিশের জরুরী সেবা ৯৯৯ এ অভিযোগ করা হলে তাৎক্ষণিক কক্সবাজার সদর মডেল থানা ওসি শেখ মনীর উল গীয়াসের নেতৃত্বে কক্সবাজার সদর মডেল থানার একদল পুলিশ অভিযান চালিয়ে ৪ জনকে আটক করেন।
আটককৃতরা হলেন, চট্টগ্রাম জেলার সাতকানিয়া থানাধীন এওছিয়া ইউনিয়নের পশ্চিম পটিয়া ডাঙ্গা এলাকার ( বর্তমানে- ওয়ার্ল্ড বীচ রিসোর্ট, কলাতলি ডলফিন মোড়, কক্সবাজার )মৃত এয়াজর রহমানের ছেলে হাজী দেলোয়ার হোসেন, তার ছেলে মো. ওমর ফারুক,ইমরান ফয়সাল ও কক্সবাজার পৌরসভার ৩ নং ওয়ার্ড নতুন বাহারছড়া এলাকার মৃত আবু ছৈয়দের ছেলে শেখ আবদুল্লাহ।
আহতদের কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
কক্সবাজার সদর মডেল থানার ওসি মনীর উল গীয়াস ঘটনা নিশ্চিত করে বলেন, এঘটনায় ৯ নভেম্বর হামলা, চাঁদাবাজিসহ অন্যান্য ধারায় মামলা ( নং ১২) রুজু হয়েছে। আটককৃতদের আদালতে সোর্পদ করা হয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ