বুধবার, ১৭ অগাস্ট ২০২২, ১২:৪১ অপরাহ্ন
বিশেষ ঘোষণাঃ
• করোনাভাইরাস প্রতিরোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন, টিকা নিন। • গুজব নয়, সঠিক সংবাদ জানুন। • দেশের কিছু জেলা, উপজেলা, গুরুত্বপূর্ণ স্থান এবং বিশ্বের কয়েকটি দেশের গুরুত্বপূর্ণ শহরে (খালি থাকা সাপেক্ষে) প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। • আপনি কি কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে 'ফিল্ম ও মিডিয়া, গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা' বিষয়ে পড়ছেন? বাংলাদেশ প্রতিবেদন আপনাকে দিচ্ছে 'ইন্টার্নশিপ'-এর সুযোগ। • আপনিও হতে পারেন সাংবাদিক! চলতি পথে নানা অসঙ্গতি, দুর্নীতি, কারো সফলতা বা যেকোনো ভিন্নধর্মী খবর (ছবি অথবা ভিডিও) পাঠাতে পারেন। • হটলাইনঃ +৮৮০ ১৯ ০৯ ৮৬ ২৬ ১৬ (হোয়াটসঅ্যাপ), • ই-মেইলঃ protibedonbd@gmail.com • গুগল, ফেসবুক ও ইউটিউবে আমাদের পেতে Bangladesh Protibedon লিখে সার্চ দিন।

৮৬ শতাংশ পরীক্ষার্থীর উপস্থিতিতে গুচ্ছভুক্ত “এ” ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত

বাংলাদেশ প্রতিবেদন
প্রকাশকালঃ রবিবার, ১৭ অক্টোবর, ২০২১

৮৬ শতাংশ পরীক্ষার্থীর উপস্থিতিতে গুচ্ছভুক্ত “এ” ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত।

গুচ্ছ পদ্ধতিতে ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক ( সম্মান) প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষা পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রে সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হয়েছে। এতে ‘এ’ ইউনিটে প্রায় ৪০০০ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে ৩৪২২জন পরীক্ষার্থীর অংশ নেয়, যা মোট পরীক্ষার্থীর ৮৫.৫৬ শতাংশ।

রোববার (১৭ অক্টোবর) দুপুর ১২ টা থেকে ১টা পর্যন্ত বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ‘এ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এছাড়া পরীক্ষায় প্রায় ৫৭৭ জন পরীক্ষার্থী অনুপস্থিত ছিলেন।

পরীক্ষা কেন্দ্র পরিদর্শন শেষে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. স্বদেশ চন্দ্র সামন্ত বলেন ভর্তি পরীক্ষা শান্তিপূর্ণভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে।প্রথমবারের মত শিক্ষার্থীদের দুর্ভোগ লাগব করতে ২০টি বিশ্ববিদ্যালয় নিয়ে গুচ্ছ পদ্ধতিতে পরীক্ষার আয়োজন করা হয়েছে। প্রশ্নপত্র সংগ্রহ থেকে পরীক্ষা সবকিছু সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হয়েছে ভর্তি পরীক্ষার সাথে সংশ্লিষ্ট শিক্ষক ও কর্মচারীবৃন্দদের সহযোগিতায়।

এদিকে গুচ্ছ পদ্ধতিতে পরীক্ষা দিতে এসে পরীক্ষার্থীদের মাঝে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা যায়।
সাদিয়া নামের এক পরীক্ষার্থী বলেন, গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা হওয়ায় আমাদের ভোগান্তি অনেকাংশে কমে গেছে। প্রশ্নপত্রও মানসম্পন্ন হয়েছে।

তবে আল-আমিন নামের আরেক পরীক্ষার্থী বলেন, প্রশ্ন একটু কঠিন হয়েছে। তিনি আরও বলেন গুচ্ছ পদ্ধতি আমাদের জন্য সুবিধা হয়েছে ঠিকই। কিন্তু ভোগান্তুও কম নয় পরীক্ষা দেয়ার জন্য সুদূর কুমিল্লা থেকে আসতে হয়েছে।আর ভর্তি পরীক্ষার মাধ্যমে ২০ টি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির সুযোগ। যদি কোন কারণে পরীক্ষা খারাপ হয়ে যায় তাহলে ২০ টি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তির স্বপ্ন একবারে শেষ হয়ে যাবে।

এদিকে ভর্তিচ্ছুকদের সুবিধার্থে সামগ্রী নিরাপদে রাখার জন্য বিনামূল্যে বিশেষ বুথ স্থাপন, অভিভাবকদের বিশ্রামের জন্য চেয়ারের ব্যবস্থা, দ্রুত পরীক্ষা কেন্দ্রে পৌছাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের বাস সার্ভিসহ নানা উদ্যােত গ্রহণ করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

এছাড়া পরীক্ষা কেন্দ্রের নিরাপত্তা বজায় রাখতে পুলিশ প্রশাসনের পাশিপাশি বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টরিয়াল টিম, বিএনসিসি ও রোভার স্কাউট দায়িত্ব পালন করেন।

উল্লেখ্য, আগামী ২৪ অক্টোবর ‘বি’ ইউনিট ও ১ লা নভেম্বর ‘সি’হ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ক্যাম্পাসে অনুষ্ঠিত হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ