শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৭:১৫ অপরাহ্ন
জরুরী ঘোষণাঃ
দেশের কয়েকটি জেলা, উপজেলা, থানা ও গুরুত্বপূর্ণ স্থানে (খালি থাকা সাপেক্ষে) প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। যোগাযোগঃ ০১৯ ০৯ ৮৬ ২৬ ১৬ হটলাইন। বিশ্বের কয়েকটি দেশের গুরুত্বপূর্ণ শহরে প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। যোগাযোগঃ +৮৮ ০১৯ ০৯ ৮৬ ২৬ ১৬ হোয়াটসআপ। আপনিও হতে পারেন সাংবাদিক! চলতি পথে নানা অসঙ্গতি, দুর্নীতি, কারো সফলতা বা যে কোনো ব্যতিক্রম খবর পাঠিয়ে দিতে পারেন। ছবি ও ভিডিও থাকলে আরো ভাল। পাঠিয়ে দিন আমাদের এই ঠিকানায়: protibedonbd@gmail.com • আপনি কি কোনো বিশ্ববিদ্যালয়ে সাংবাদিকতায় পড়শুনা করছেন? বাংলাদেশ প্রতিবেদন আপনাকে দিচ্ছে ‘ইন্টার্নশিপ’ এর সুযোগ। আজই যোগাযোগ করুন। করোনা থেকে বাঁচতে, স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন।

অস্ট্রেলিয়া থেকে বাংলাদেশে ফ্রি টিকা পাঠাতে শতাধিক সংগঠনের সংহতি

/ ১৭২ /২০২১
প্রকাশকালঃ রবিবার, ১ আগস্ট, ২০২১

অস্ট্রেলিয়া থেকে বাংলাদেশে ফ্রি টিকা পাঠাতে শতাধিক সংগঠনের সংহতি

মোশারফ হোসেন নির্জন, অস্ট্রেলিয়াঃ দেশের প্রতি গভীর মমত্ববোধ থেকে কভিডকালীন সহয়তার হাত বাড়িয়ে দিতে সংহতি প্রকাশ করলেন অস্ট্রেলিয়ায় অবস্থানরত প্রায় শতাধিক বাংলাদেশি সংগঠন। অস্ট্রেলিয়ায় উদ্ধৃত্ত থাকা প্রায় পাঁচ মিলিয়ন টিকা মাতৃভূমিকে পাইয়ে দেওয়ার জন্য গত চার মাস ধরে বেশকিছু বাংলাদেশি নেপথ্যে কাজ করছেন এবং মূলধারার অস্ট্রেলিয় নীতি-নির্ধারকদের কাছে এই বিষয়টি উথাপন করেছেন। বিষয়টি গড়ায় সংসদেও, মোটা দাগের অনলাইন স্বাক্ষর হলে আবেদনটি সংসদে পাশ হওয়ার প্রতিশ্রুতি পান বাংলাদেশীরা।

আজ পহেলা আগষ্ট রবিবার সন্ধ্যায় এক গুরুত্বপূর্ণ ভার্চুয়াল সভায় যোগদেন অস্ট্রেলিয়ায় বাংলাদেশীদের জন্য নিবেদিত বিভিন্ন ঘরানার বাংলা সংগঠনের নেতৃবৃন্দরা। কভিড কালীন এসময়ে বাংলাদেশে সৃষ্ট সংকটে ভূমিকা রাখার প্রয়াসে স্বতোস্ফূর্তভাবে অংশ নেন সবাই।

আর এ উদ্যোগের বড় প্রাপ্তি হিসেবে অস্ট্রেলিয়ায় অব্যবহৃত অ্যাস্ট্রাজেনেকা ভ্যাকসিন উপহার হিসেবে বাংলাদেশে পাঠানোর অনুমোদনকে সাফল্যমন্ডিত করতে সবার মতামত বিনিময় ও সক্রিয় ভুমিকা রেখে এগিয়ে যাওয়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন বক্তরা। তাছাড়া অনুদানসহ আরো বিভিন্ন প্রক্রিয়ায় বাংলাদেশকে সহয়তা করার সম্ভাব্য উপায় নিয়েও মতবিনিময় হয়।

আলোচনা সভায় অস্ট্রেলিয়ার অভিবাসী ও নাগরিক বিষয়ক মন্ত্রি আলেক্স হক অংশ নেন। তিনি জানান, আমরা চাইনা বাংলাদেশ ভারতের মতো বিপর্যয়ে পড়ুক, অবশ্যই অস্ট্রেলিয়া বাংলাদেশের পাশে থাকবে, আমি এই বিষয়টি সংসদে উথাপন করবো। আরো অংশ নেন অস্ট্রেলিয়ার নিউ সাউথ ওয়ালেস শাখার লিবালের পার্টির সভাপতি ও সাবেক মন্ত্রী ফিলিপ রুডক।

বাংলাদেশের পক্ষ থেকে অস্ট্রেলিয়ার বাংলাদেশী হাইকমিশনার জনাব সুফিউর রহমান কমিউনিটির সভার অংশ গ্রহণকে সাধুবাদ জানান এবং একসাথে কাজ করাকে ইতিবাচক বলে উল্লেখ করেন। অস্ট্রেলিয়ার সবকটি রাজ্য ও শহর থেকে অংশ নেওয়া সংগঠক, সাংবাদিকবৃন্দ, সাবেক ও বর্তমান কাউন্সিলর সহ আরো অনেক গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গও মতবিনিময় করেন। বক্তাদের অনেকে বাংলাদেশে নিজস্ব উপায়ে ভ্যাকসিন উৎপাদন সক্ষমতা অর্জন, অন্যান্য মেডিকেল সরঞ্জাম সহজলভ্যতার ব্যপারে প্রবাস থেকে সহয়তা দেওয়ার সম্ভাবনাগুলো নিয়ে আলোচনা করেন।

টিকা পাঠানোর এ কার্যক্রম গতিশীল করতে শুরু থেকেই কাজ করছেন কামরুল চৌধুরী ও ডাক্তার আইউয়াজ চৌধুুরী। তাদের সাথে আরো যোগ দেন ইঞ্জি: আব্দুল মতিন, শাহে জামান  ‍টিটু তানভীর শহীদ ও মাসুদ পারভেজ সহ আরো অনেক স্বেচ্ছাসেবী।

আলোচনা সভায় বাংলাদেশ প্রতিবেদনকে উপস্থাপন করে মিডিয়া কাভারেজ দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেন গণমাধ্যামটির আন্তজার্তিক ব্যুরো প্রধান মোশারফ হোসেন নির্জন।

জানা যায়, অস্ট্রেলিয়ার নিজস্ব ল্যাবরেটরিতে উৎপাদিত অ্যাস্ট্রাজেনেকার ভ্যাকসিনের উদ্বৃত্ত ৫০ মিলিয়ন ভ্যাকসিন বাংলাদেশে পাঠাতে ইতিমধ্যে অনলাইন স্বাক্ষর শুরু হয়েছে। এখন পর্যন্ত প্রায় সাড়ে পাচঁ হাজার সাইন অন্তর্ভূক্ত হয়েছে। আগামী ১২ আগস্ট পর্যন্ত করা যাবে এই পিটিশন। অস্ট্রেলিয়ার নাগরিক ও বসবাসকারী যে কেউ এই সাক্ষর করতে পারবে এই লিংকে https://www.aph.gov.au/e-petitions/petition/EN2869/sign


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

Categories