সোমবার, ২৬ জুলাই ২০২১, ০১:১৭ পূর্বাহ্ন
জরুরী ঘোষণাঃ
দেশের কয়েকটি জেলা, উপজেলা, থানা ও গুরুত্বপূর্ণ স্থানে (খালি থাকা সাপেক্ষে) প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। যোগাযোগঃ ০১৯ ০৯ ৮৬ ২৬ ১৬ হটলাইন। বিশ্বের কয়েকটি দেশের গুরুত্বপূর্ণ শহরে প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। যোগাযোগঃ +৮৮ ০১৯ ০৯ ৮৬ ২৬ ১৬ হোয়াটসআপ। আপনিও হতে পারেন সাংবাদিক! চলার পথে নানা অসঙ্গতি, দুর্নীতি, কারো সফলতা বা যে কোনো ব্যতিক্রম খবর পাঠিয়ে দিতে পারেন। ছবি ও ভিডিও থাকলে আরো ভাল। পাঠিয়ে দিন আমাদের এই ঠিকানায়: protibedonbd@gmail.com • আপনি কি কোনো বিশ্ববিদ্যালয়ে সাংবাদিকতায় পড়শুনা করছেন? বাংলাদেশ প্রতিবেদন আপনাকে দিচ্ছে ‘ইন্টার্নশিপ’ এর সুযোগ। আজই যোগাযোগ করুন। করোনা থেকে বাঁচতে, স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন। • বাংলাদেশ প্রতিবেদন-এর পাঠক, দর্শক, বিজ্ঞাপনদাতা ও শুভাকাঙ্খীদের জানাই ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা ‘ঈদ মোবরক’।

পবিত্র ঈদুল আযাহার পূর্বে গুম সন্তানদের মায়ের কোলে ফিরিয়ে দিন : মায়ের ডাক

নিজস্ব প্রতিবেদক: / ৩১ /২০২১
প্রকাশকালঃ সোমবার, ১৯ জুলাই, ২০২১

পবিত্র ঈদুল আযাহার পূর্বে গুম সন্তানদের মায়ের কোলে ফিরিয়ে দিন : মায়ের ডাক

 

ঈদের পূর্বে গুম হওয়াদের স্বজনদের কাছে ফিরিয়ে দেয়ার জন্য সরকারের কাছে আহ্বান জানিয়ে বিভিন্ন সময়ে নিখোঁজ ব্যক্তিদের পরিবারের সদস্যদের প্ল্যাটফর্ম ‘মায়ের ডাক’ বলেন, রাষ্ট্রের দায়িত্ব হচ্ছে যারা গুম হয়েছে তাদের খুঁজে বের করা। তাদের ফেরত নিয়ে আসা। যারা এই জঘন্য কাজটি করছেন, তাদের শাস্তির ব্যবস্থা করা। কিন্তু আমরা যখন দেখি দিনের পর দিন, বছরের পর বছর রাষ্ট্র কোনো ব্যবস্থা নিচ্ছে না, এমনকি মামলা করতে গেলে মামলা নিতে চায় না, তদন্ত করে না। বিচার কার্য ঝুলিয়ে রাখে। অভিযোগ পত্র দেয় না। উল্টো যারা ভুক্তভোগী তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়। তখন অবশ্য আমাদের সন্দেহ করার কারণ আছে যে, এ গুমের সঙ্গে রাষ্ট্র জড়িত।
………………… গণমাধ্যমে প্রেরিত ‘মায়ের ডাক’-এর পক্ষ থেকে সংগঠনের সমন্বয়ক ও গুম হওয়া সাজেদুল ইসলাম সুমনের বোন আফরোজা ইসলাম আখি স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে আহ্বান জানানো হয়।

তিনি বলেন, এ দেশে যে গুমের সংস্কৃতি শুরু হয়েছে এবং দেশের বর্তমান যে অবস্থা দাঁড়িয়েছে, সেখান থেকে আমাদের ঘুরে দাঁড়াতে হবে। আমরা মনে করি সরকারের নির্দেশেই আইন শৃঙ্খলা বাহিনী এদেরকে (নিখোঁজ ব্যক্তিদের) উঠিয়ে নিয়ে গেছে। এটা মনে করার কারণ হলো, আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর পরিচয়ে যদি তুলে নেয়া হয়, তাকে ফিরিয়ে দেয়ার দায়িত্ব সরকারের। তাকে খুঁজে বের করার দায়িত্ব আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর। কিন্তু আজ পর্যন্ত ৫শ’র উপরে গুমের ঘটনা ঘটেছে। কিন্তু ফিরে আসার সংখ্যা হতে গোনা কয়েকজন।
গুম একটি মানবতাবিরোধী অপরাধ সরকারকে বিষয়টি মনে করিয়ে দিয়ে তিনি বলেন, আমরা আশা করবো পবিত্র ঈদুল আযাহার আগে নিখোঁজ ব্যক্তিরা তাদের স্বজনদের কাছে ফিরে আসবেন।
মায়ের ডাকের পক্ষ থেকে আরো বলা হয় যে, গুমকে নির্যাতনের হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করায় দেশে এক ধরনের ভয়ার্ত পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে। পাঁচশর অধিক লোক গুম হয়েছে এ পর্যন্ত। কিন্তু ফিরে এসেছে হাতে গোনা দু একজন। যারা ফিরে আসছেন তারা একটি শব্দ পর্যন্ত উচ্চারণ করতে সাহস পাচ্ছেন না।

তিনি বলেন, গুম হওয়া পরিবারের পক্ষ থেকে সরকারের কাছে দীর্ঘ দিন ধরে একটি দাবি আমরা করছি যে, এই নিখোঁজ মানুষগুলো বাংলাদেশের নাগরিক। সে কোন দলের কোন মতের সেটি বিবেচনা না করে তাদের উদ্ধার করুন। তাদেরকে ফিরে পেতে সহায়তা করুন। মায়ের ডাকের সমন্বয়ক আফরোজা ইসলাম আখি বলেন, গত ৬/৭ বছর ধরে বছরের পর বছর দিনের পর দিন বলেই আসছি আমাদের স্বজনরা নিখোঁজ। আমরা বিভিন্নভাবে সরকারকে বলে আসছি যে আমাদের স্বজনদের নিয়ে যাওয়া হয়েছে। তাদের খোঁজ মিলছে না। আমাদের স্বজনদের ফিরিয়ে দেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

Categories