সোমবার, ২৬ জুলাই ২০২১, ১২:০২ পূর্বাহ্ন
জরুরী ঘোষণাঃ
দেশের কয়েকটি জেলা, উপজেলা, থানা ও গুরুত্বপূর্ণ স্থানে (খালি থাকা সাপেক্ষে) প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। যোগাযোগঃ ০১৯ ০৯ ৮৬ ২৬ ১৬ হটলাইন। বিশ্বের কয়েকটি দেশের গুরুত্বপূর্ণ শহরে প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। যোগাযোগঃ +৮৮ ০১৯ ০৯ ৮৬ ২৬ ১৬ হোয়াটসআপ। আপনিও হতে পারেন সাংবাদিক! চলার পথে নানা অসঙ্গতি, দুর্নীতি, কারো সফলতা বা যে কোনো ব্যতিক্রম খবর পাঠিয়ে দিতে পারেন। ছবি ও ভিডিও থাকলে আরো ভাল। পাঠিয়ে দিন আমাদের এই ঠিকানায়: protibedonbd@gmail.com • আপনি কি কোনো বিশ্ববিদ্যালয়ে সাংবাদিকতায় পড়শুনা করছেন? বাংলাদেশ প্রতিবেদন আপনাকে দিচ্ছে ‘ইন্টার্নশিপ’ এর সুযোগ। আজই যোগাযোগ করুন। করোনা থেকে বাঁচতে, স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন। • বাংলাদেশ প্রতিবেদন-এর পাঠক, দর্শক, বিজ্ঞাপনদাতা ও শুভাকাঙ্খীদের জানাই ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা ‘ঈদ মোবরক’।

হাসাইল গরুর হাট বন্ধের কারনে এলাকাবাসীর ক্ষোভ

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি- / ৫০ /২০২১
প্রকাশকালঃ রবিবার, ১৮ জুলাই, ২০২১

হাসাইল গরুর হাট বন্ধের কারনে এলাকাবাসীর ক্ষোভ।

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি-

মুন্সীগঞ্জের ঐতিহ্যবাহী ২০০ বছরের পুরনো হাসাইল গরুর হাট টি এ বছর বন্ধের কারনে এলাকাবাসী ক্ষোভ প্রকাশ করেছে। গরু নিয়ে চিন্তিত এই অঞ্চলের অসংখ্য গরু ব্যবসায়ীরা সেই সাথে হাট বন্ধের কারনে অসুন্তষ্টি প্রকাশ করেছে ক্রেতারাও। হাট টি বন্ধ থাকায় এই ঐতিহ্যবাহী হাসাইল বাজারের ব্যবসায়ীদের আর্থিক ক্ষতি হবে বলে জানিয়েছে এই বাজারের অনেক দোকানীরা। তাদের দাবী এই হাট কে কেন্দ্র করে তাদের বিক্রিও অনেক বেরে যায়।

এই নিয়ে গত শনিবার(১৭-০৭-২১ইং) টঙ্গীবাড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নিকট জবাব চেয়ে মিছিলে নামেন হাসাইল বানারী ইউনিয়নের গরু ব্যবসায়ী, ক্রেতা ও স্থানীয় আওয়ামী লীগের অনেক নেতাকর্মী।

হাটকে কেন্দ্র করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকেও শুরু হয়েছে হৈচৈ। সবার একই দাবী এই হাটটি পুনরায় চালু করে এই হাটের মান বজায় রাখুক।

একটি ভিডিও বক্তব্যে হাসাইল বানারী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি এস,এম আনিসুজ্জামান টঙ্গীবাড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাহিদা পারভীন এর উদ্দেশ্যে বলেন, আমাদের পূরনো ঐতিহ্য হাসাইল হাট টি বন্ধ কেনো এর জবাবদিহি করতে হবে। আরেক আওয়ামী শ্রমিক লীগ নেতা ওসমান গনি মেলকার বলেন, এই হাট কে কেন্দ্র করে এই বাজারের দোকানদাররা লক্ষ লক্ষ টাকা বিক্রি করতো সেটা থেকে তারা বঞ্চিত হচ্ছে সেই সাথে যারা এতো দিন কষ্ট করে গরু লালন পালন করেছে তারাও গরু বিক্রি করে সস্থিতে বাড়ি ফিরে ঈদ আনন্দ করতে পারতো।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকতা নাহিদা পারভীন জানান, আমরা নিয়মের বাইরে কোন কাজ করতে পারব না। সিন্ডিকেট করে ইজারা মূল্য কম দিয়ে ইজারা নেয়া যাবে না। উপজেলার ১১টি হাটের মধ্যে হাসাইলের হাঁটটির তিনবার দরপত্র দিয়েও কাঙ্খিত ইজারা মূল্য না পাওয়ায় ইজারা দেয়া হয়নি। আসন্ন ঈদের পূর্বে আর ইজারা দেয়া হবে না।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

Categories