সোমবার, ২৬ জুলাই ২০২১, ১২:১৮ পূর্বাহ্ন
জরুরী ঘোষণাঃ
দেশের কয়েকটি জেলা, উপজেলা, থানা ও গুরুত্বপূর্ণ স্থানে (খালি থাকা সাপেক্ষে) প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। যোগাযোগঃ ০১৯ ০৯ ৮৬ ২৬ ১৬ হটলাইন। বিশ্বের কয়েকটি দেশের গুরুত্বপূর্ণ শহরে প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। যোগাযোগঃ +৮৮ ০১৯ ০৯ ৮৬ ২৬ ১৬ হোয়াটসআপ। আপনিও হতে পারেন সাংবাদিক! চলার পথে নানা অসঙ্গতি, দুর্নীতি, কারো সফলতা বা যে কোনো ব্যতিক্রম খবর পাঠিয়ে দিতে পারেন। ছবি ও ভিডিও থাকলে আরো ভাল। পাঠিয়ে দিন আমাদের এই ঠিকানায়: protibedonbd@gmail.com • আপনি কি কোনো বিশ্ববিদ্যালয়ে সাংবাদিকতায় পড়শুনা করছেন? বাংলাদেশ প্রতিবেদন আপনাকে দিচ্ছে ‘ইন্টার্নশিপ’ এর সুযোগ। আজই যোগাযোগ করুন। করোনা থেকে বাঁচতে, স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন। • বাংলাদেশ প্রতিবেদন-এর পাঠক, দর্শক, বিজ্ঞাপনদাতা ও শুভাকাঙ্খীদের জানাই ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা ‘ঈদ মোবরক’।

মাদারীপুরে জমি-জমা নিয়ে বিরোধে প্রতিপক্ষের গুলিতে নিহত ১বন্দুকসহ হত্যাকারী আটক

ইব্রাহিম সবুজ, কালকিনি (মাদারীপুর) প্রতিনিধি / ৯১ /২০২১
প্রকাশকালঃ শনিবার, ১৭ জুলাই, ২০২১

মাদারীপুরে জমি-জমা নিয়ে বিরোধে প্রতিপক্ষের গুলিতে নিহত ১বন্দুকসহ হত্যাকারী আটক।

ইব্রাহিম সবুজ, কালকিনি (মাদারীপুর) প্রতিনিধি :

মাদারীপুর কালকিনি উপজেলার ডাসার থানার বালিগ্রামে জমি-জমা নিয়ে বিরোধের জের ধরে সোহাগ তালুকদার(৩৫) নামের এক যুবককে গুলি করে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষ। হত্যায় ব্যবহৃত বন্দুকসহ হত্যাকারী আহাদকে গ্রেফতার করেছে ডাসার থানা পুলিশ। নিহত সোহাগ তালুকদার উপজেলার বালিগ্রাম ইউনিয়নের পশ্চিম বোতলা গ্রামের সামচুল হক তালুকদারের ছেলে এবং হত্যাকারী আহাদ একই এলাকার মৃত আ. হাই মাতুব্বরের ছেলে। আজ শনিবার (১৭ জুলাই) সকালে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, সোহাগ ও আহাদের পরিবারের মধ্যে জমি-জমা নিয়ে বিরোধ হয়। এ নিয়ে স্থানীয়ভাবে সালিশ করে দুই পক্ষকে জমি ভাগ করে দিয়ে যার যার জমিতে ধান লাগাতে বলে রায় দেয়। সালিশের রায় পেয়ে শনিবার সকাল ৬ টায় সোহাগ তার নিজ অংশের জমিতে ধান লাগাতে গেলে আহাদ বাধা দেয় একপর্যায়ে নিজের লাইসেন্স করা এক নলা বন্দুক দিয়ে গুলি করে। এতে গুলিবিদ্ধ হয়ে গুরুতর আহত হয় সোহাগ।
স্থানীয়রা দ্রুত আহত সোহাগকে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। সোহাগের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন কর্তব্যরত চিকিৎসক। ঢাকা নেয়ার পথে সোহাগের মৃত্যু হয়। খবর পেয়ে ডাসার থানা পুলিশ আহাদকে গ্রেফতার করে। সেসময় তার কাছ থেকে হত্যায় ব্যবহৃত লাইসেন্স করা (আহাদের নামে) বন্দুকটি উদ্ধার করা। এ ঘটনায় নিহতের বাবা সামচুল হক তালুকদার বাদী হয়ে ওই ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মতিন মোল্লা, ঘাতক কামালউদ্দিন ওরফে আহাদসহ পাঁচ জনকে আসামী করে ডাসার থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করে।

এ বাপারে উপজেলার ডাসার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ হাসানুজ্জামান বলেন, খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থল থেকে বন্দুক উদ্ধার করেছি। এবং এ ঘটনায় থানায় একটি মামলা হয়েছে। আমরা প্রধান আসামীকে গ্রেফতার করেছি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

Categories