রবিবার, ১৬ মে ২০২১, ০২:৫৮ অপরাহ্ন

অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্নে ‘বৈশাখী মিলনমেলা’

মোশারফ হোসেন নির্জন, অস্ট্রেলিয়া / ৭৪ /২০২১
প্রকাশকালঃ রবিবার, ১৮ এপ্রিল, ২০২১

অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্নে ‘বৈশাখী মিলনমেলা’

পাশ্চাত্য সভ্যতার উন্নত শহর মেলবোর্নের বুকে বাংলা সংস্কৃতির সৌন্দর্য তুলে ধরতে বৈশাখের আয়োজন করেছেন প্রবাসী বাংলাদেশীরা। মূলত মাল্টিকালচার সংযোজন রেখে বৈশাখের আনন্দ ভাগাভাগি করতে এ ববর্ণাঢ্য আয়োজন; নেপথ্যে কাজ করেছেন অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্নের মাদার সংগঠন ভিবিসিএফ।

১০ এপ্রিল দিনব্যাপী আয়োজিত এ অনুষ্ঠান মুগ্ধকরে বাংলাদেশীসহ অন্যান্য কমিউনিটির সদস্যদের। কভিড বিধি মেনে রেকর্ড সংখ্যক দর্শনার্থীর উপস্থিতি নিশ্চিত করে আয়োজকরা।

ভিক্টোরিয়া বাংলাদেশী কমিউনিটি ফাউন্ডেশন (ভিবিসিএফ) এর উদ্যোগে এটিই প্রথমবারের মতো বৈশাখী মিলনমেলা। এতে বিভিন্ন ধাপে অংশ নেন  চার হাজারেরও বেশী দর্শনার্থী। আয়োজক কমিটি জানান, সকাল ১১টার আগে থেকেই উৎসুক বাংলাদেশীরা লাইনে দাঁড়িয়ে প্রবেশ করতে থাকেন অনুষ্ঠানস্থলে।

কভিডের ধাক্কা সামলিয়ে উঠা মেলবোর্নবাসীরা যেন মাহেন্দ্রক্ষণ খুজে পেয়েছিলেন দিনটিতে। দীর্ঘদিন পর বড় কোন আসরের স্বাক্ষী হলেন সবাই। উৎসব উল্লাসে আয়োজিত স্থলটি (অঙ্কর ইভেন্ট সেন্টার) যেন হয়ে উঠে এক টুকরো বাংলাদেশ। গত তিনমাস ধরে পরিকল্পনার সফল প্রয়োগ দেখা যায় বর্নাঢ্য এ আয়োজনে। তিনটি অংশে ভাগ করা হয় সাংস্কৃতিক পর্বকে। সংগঠনটির প্রেসিডেন্ট ইউসুফ আলী জানান, আমরা সাংস্কৃতিক পর্বে আমাদের সংগঠনের জন্য একটি পর্ব, দক্ষিণ এশিয়ার জন্য একটি পর্ব ও অন্যান্য দেশের জন্য একটি পর্ব- এভাবে ভাগ করেছিলাম। খুব সুন্দর আয়োজন ছিলো। সবাইকে অসংখ্য ধন্যবাদ ভিবিসিএফের সাথে থাকার জন্য।

সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে মেলবোর্নের বাংলাদেশী সাংস্কৃতিক গোষ্ঠী ছাড়াও সৃজনশীল পরিবেশনা নিয়ে হাজির হন কলকাতা, তেলেঙ্গানা, চায়না ও অন্যান্য কমুনিটির শিল্পীরা। এছাড়া প্রবাস ধ্বনি ও ওয়েষ্টার্ন রিজিওন বাংলা স্কুলের পরিবেশনাও ছিলো প্রশংসনীয়।

ভিবিসিএফের ভাইস প্রেসিডেন্ট মোশাররফ হোসেন রেহান একান্ত সাক্ষাতকারে বলেন, আমরা অভূতপূর্ব সাড়া পেয়েছি।সকল সংঙ্কা কাটিয়ে আমরা দলমত নির্বিশেষে সবাইকে এক ছাদের নিচে আনতে পেরেছি। এপর্যন্ত এটিই আমাদের সবচেয়ে বড় আয়োজন। আমাদের ইভেন্টে অনেক ধরণের স্টল বসেছে প্রত্যেকেই কিন্তু মুনাফা নিয়ে ফিরেছে। আমরা চাই অস্ট্রেলিয়ায় বাংলা সংস্কৃতির দাপট আরো বাড়ুক, সেই প্রত্যাশায় আগামীতে আরো বড় পরিসরে আয়োজনের প্রয়াস রাখতে চাই।
আয়োজনে বিভিন্ন ক্ষেত্রে সাফল্য ও অবদানের জন্য ভিক্টোরিয়ার বাংলাদেশী কমিউনিটির বিশিষ্ট ব্যাক্তিদের সম্মাননা প্রদান করা হয়। সন্মাননা পান, কামরুল চৌধুরী (সমাজ সেবা), সহযোগী অধ্যাপক জনাব আখতার হোসাইন (শিক্ষা ও গবেষণা), ডঃ আহমেদ শরীফ শুভ ও ডঃ আজিজ রহমান (চিকিৎসা ও স্বাস্থ্য), শুভ্রা দাস (মরণোত্তর) (সংস্কৃতি) ও মাহাদী ইসলাম (ক্রীড়া)।
অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন অস্ট্রেলিয়ার ফেডারেল এমপি জোয়ান রায়ান, ভিক্টোরিয়ার সিনেটর কুশেইলা ভ্যাগেলা এমপি, উইন্ডহ্যাম সিটির কাউন্সিলর হেথার মার্কাস, জেসমিন হিল ও সাহানা রামেশ। কাউন্সিলররা এই আয়োজনে সংহতি প্রকাশ করে আগামীতেও পাশে থাকার আশ্বাস দেন বলে জানান আয়োজক কমিটি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

বাংলাদেশে করোনা ভাইরাস

সর্বমোট

আক্রান্ত
৭৭৯,৭৯৬
সুস্থ
৭২১,৪৩৫
মৃত্যু
১২,১২৪
সূত্র: আইইডিসিআর

সর্বশেষ

আক্রান্ত
সুস্থ
মৃত্যু
স্পন্সর: একতা হোস্ট

Categories