বৃহস্পতিবার, ২২ এপ্রিল ২০২১, ০৭:১০ অপরাহ্ন

বাল্য বিবাহকে এখন সমাজ ঘৃনার চোখে দেখে

নিজস্ব প্রতিবেদক ভোলা / ৪৭ /২০২১
প্রকাশকালঃ সোমবার, ২২ মার্চ, ২০২১

ভোলার চরফ্যাশনে এপিসি প্রকল্পের আওতায় কোস্ট ফাউন্ডেশন প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে সাংবাদিকদের সাথে শিশু বিবাহ প্রতিরোধে আইন বিষয়ক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে৷
সোমবার ২২ মার্চ বেলা সাড়ে ১১টায় ইউনিসেফ এবং মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতায় এই সভা অনুষ্ঠিত হয়৷

সভায় চরফ্যাসন প্রজেক্ট অফিসার সঞ্জয় কুমার এর সভাপতিত্বে মনিরুজ্জামানের সন্চালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চরফ্যাশন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ রুহুল আমিন৷ বিশেষ অতিথি চরফ্যাশন প্রেসক্লাবের সভাপতি অধ্যক্ষ আবুল হাসেম মহাজন,সিনিয়র সহসভাপতি এমআবু সিদ্দিক, সহ সভাপতি ইয়াছিন আরাফাত উপস্হিত ছিলেন৷ এছাড়াও সাংবাদিক এম আমির হোসেন,কামাল মিয়াজী, মাইনউদ্দিন জমাদার, কামরুল সিকদার, জামাল মোল্লা, ইলিয়াস হোসাইন, সোয়েব চৌধুরী, আমিনুল ইসলাম সহ উপজেলায়কর্মরত সংবাদকর্মীরা সংলাপে অংশ নেন৷

সংলাপে বক্তারা বলেন, বাল্যবিবাহ বন্ধে এব্যাপারে সরকার স্থানীয় সরকার প্রতিনিধি ও সরকারি কর্মকর্তাদের বিশেষ ক্ষমতা দেওয়া হয়েছে। তাৎক্ষণিক বিচারের জন্য ভ্রাম্যমাণ আদালতকে এই আইনের আওতায় যুক্ত করা হয়েছে। তার পরেও কেন শিশু বিবাহ বন্ধ করা যাচ্ছে না৷আবার কেউ স্হানীয় কম্পিউটারের দোকানে টাকার বিনিময়ে ভূয়া জন্মসনদে বয়স এডিট করে করে নিচ্ছে৷মোবাইল কোর্ট পরিচালিত হলে কেউ আবার কোর্টের এভিটএপিডের কাগজ নিয়ে হাজির৷
প্রধান অতিথি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ রুহুল আমিন বলেন, বাল্য বিবাহ সমাজ এখন ঘৃনার চোখে দেখে।বিভিন্ন এলাকায় সাংবাদিকদের সহযোগীতায় শিশু বিবাহ বন্ধে সহায়ক হচ্ছে।
বিশেষ অতিথি চরফ্যাসন প্রেসক্লাব সভাপতি অধ্যক্ষ আবুল হাসেম মহাজন বলেন, শিশু বিবাহ প্রতিরোধে সাংবাদিকদের ভূমিকা অপরসীম। ইভটিজিং এর কারনে বাল্য বিবাহ বাড়ছে। তাই প্রশাসনকে আরো কঠোর হয়ে কাজ করতে হবে৷

বিশেষ অতিথি প্রেসক্লাবের সিনিয়র সহ সিনিয়র সভাপতি এম আবু সিদ্দিক বলেন, শিশু বিবাহ প্রতিরোধে সাংবাদিকদের ভূমিকা অপরসীম। ইভটিজিং এর কারনে বাল্য বিবাহ বাড়ছে। তাই প্রশাসনকে আরো কঠোর হয়ে কাজ করতে হবে। বিশেষ অতিথি ইয়াছিন আরাফাত বলেন সমাজে বিভিন্ন কারনে অভিভাবকরা ১৮ বছরের আগে বিয়ে দিতে বাধ্য হচ্ছে৷ এর নেপথ্যে নিরাপত্তাহীনতা৷ যথাযথ কারন বের করে সরকারি বা স্বেচ্ছাসেবি কোন সংস্হা তার পরিবার ও কিশোরীর দায়িত্ব নিতে হবে৷

 


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

বাংলাদেশে করোনা ভাইরাস

সর্বমোট

আক্রান্ত
৭৩৬,০৭৪
সুস্থ
৬৪২,৪৪৯
মৃত্যু
১০,৭৮১
সূত্র: আইইডিসিআর

সর্বশেষ

আক্রান্ত
৪,০১৪
সুস্থ
৭,২৬৬
মৃত্যু
৯৮
স্পন্সর: একতা হোস্ট

Categories