শনিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৬:৫৪ পূর্বাহ্ন

গ্রেপ্তারি পরোয়ানা নিয়ে টিভিতে সংবাদ পাঠ করছেন স্বপ্না

নিজস্ব প্রতিবেদক / ২৬ /২০২০
প্রকাশকালঃ বৃহস্পতিবার, ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২১

গ্রেপ্তারি পরোয়ানা নিয়ে টিভিতে সংবাদ পাঠ করছেন স্বপ্না

প্রতারণা মামলায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানা নিয়েই নিয়মিত সংবাদ পাঠ করে যাচ্ছেন শারমিন কবির স্বপ্না। ২০২০ সালের ৩০ জানুয়ারী রাজধানীর মোহম্মদপুর থানার ৯৮নং অর্থ আত্মসাৎ ও প্রতারনার মামলায় শারমিন কবির স্বপ্না পালাতক থেকেও টিভি চ্যানেলে সংবাদ উপাস্থাপন করে চলেছেন। থোড়াও কেয়ার করছেন আইন আদালত প্রশাসনকে, সাংবাদিকতা পেশাকে করছেন বিতর্কিত। সংবাদ পাঠিকা শারমিন কবির স্বপ্নার বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাৎ ও প্রতারণার অভিযোগে মামলা করেন ব্যবসায়ী আনোয়ার হোসেন নোমান।

মামলার নথি থেকে জানা গেছি, ২০১৪ সালের জুলাই মাসের ৩০ তারিখে ব্যবসায়িক চুক্তিপত্রের মাধ্যমে স্বপ্নার পারিবারিক স্যানিটারি ব্যবসায় ৩০ লাখ টাকা বিনিয়োগ করেন ব্যবসায়ী নোমান। বিনিময়ে নিয়মিত লভ্যাংশ প্রদান করার কথা থাকলেও সেটা না দিয়ে পুরো টাকা আত্মসাৎ করে নেন স্বপ্না ও তার পরিবার। টাকা না পেয়ে ২০১৮ সালে আদালতে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে স্বপ্নার বিরুদ্ধে মামলা করেন জনৈক আরিফ হোসেন নোমান। মামলা তুলে নিতে চাপ দেওয়াসহ আরো ৫০ লাখ টাকা নোমানের কাছে দাবি করে নোমানের বিরুদ্ধে নারী নির্যাতন আইনে মামলাকরারহুঁমকি দেন স্বপ্না।

জানা গেছে, রাজধানীর দক্ষিন খান এলাকার একটি কাজি অফিসের ঠিকানা দিয়ে নোমনকে ফাঁসাতে একটি ভূয়া বিবাহের কাবিননামা দিয়ে আদালতে মামলা করেন সংবাদ পাঠিকা শারমিন কবির স্বপ্না। মামলায় তিনি উল্লেখ করেন নোমান তাকে বিয়ের পর থেকেই যৌতুকের জন্য নিয়মিত মারধর করে এবং যৌতুক দাবি করে। এরপর ২০২০ সালের ৩০ জুলাই রাজধানীর মোহম্মদপুর থানায় স্বপ্না ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাৎ ও জালিয়াতি করে ভূয়া কাবিননামা তৈরির ও চাঁদাবাজির মামলা করেন নোমান। সেই মামলায়র এজাহার ভুক্তু আসামি হয়েও জামিন না নিয়ে আইনকে বৃদ্ধা আংগুল দেখিয়ে অদৃশ্য ক্ষমতা বলে একটি সুনাম ধন্য টিভি চ্যানেলে নিয়মিত সংবাদ পাঠ করে সাংবাদিকতাকে বিতর্কিত করছেন এবং ব্যাবসায়ী নোমান কেযার পর নাই হয়রানী করে চলেছেন সপ্না।

ভুক্তভোগী নোমান জানান, শারমিন কবির স্বপ্না তার পূর্ব পরিচিত, ২০১৪ সালে দেনার কারনে তার বাবার স্যানেটারির ব্যবসায় টাকার প্রয়োজনের কথা বলে আমাকে প্ররোচীত করে। আমাকে প্রতিমাসে ৫ শতাংশ লভ্যাংশের বিনিময়ে ৩০ লাখ টাকা লিখিত চুক্তিপত্রের মাধ্যমে তার বাবার দোকানে বিনিয়োগ করে, চুক্তি অনুযায়ী সে আমাকে লভ্যাংশের কোন টাকাই দেয়নি। টাকা চাইলে বারংবার ওয়াদা করে নানাভাবে বিষয়টি এড়িয়ে যেতে থাকে স্বপ্না। এক সন্তানের জননী হয়েও সপ্না টাকা নাদেওয়ার অসৎ উদ্দেশ্যে সে আমার সাথে বন্ধুত্বপূর্ণ বৈবাহিক সম্পর্ক গড়ার চেষ্টা করে ব্যার্থ হয়ে আমাকে নানা রকম হুমকি ধামকি প্রদান করেতে থাকে। স্বপ্না এর আগে ২০০৬ সালে ধানমন্ডি নিবাসী শিপলু রহমান সুমন নামের একজন ব্যবসায়ীকে প্রতারনার মাধ্যমে বিয়ে করে পুনরায় তাকে তালাক দিয়ে আদায় করেন মোটা অংকের কাবিনের অর্থ এরপর ২০০৮ সালে আরেকটি টেলিভিশনের বার্তা সম্পাদক আশরাফুল কবির আসিফকে বিয়ে করে এক সন্তানের জননী হয়েছেন। অন্যদিকে স্বপ্না ব্যবসায়ী নোমানের বিরুদ্ধে মামলায় ব্যাবহারিত কাবিননামা রয়েছে নানান অসংগতি, স্বপ্না ও নোমানের বিয়ের কাবিননামায় ২০১৫ সালের ২৯ মে বিবাহের তারিখ এদিকে স্বপ্না ও আসিফের তালাকনামায় দেখা যায় তাদের তালাক হয় ২০১৫ সালের ১৭ জুন, তাহলে আগের স্বামীকে তালাক না দিয়ে নতুন বিয়ে আইন সম্মত নয় বলে জানা যায়। সংবাদ পাঠিকা শারমিন স্বপ্নার ঢাকার কল্যানপুরের কৃষ্ণচুড়া অ্যাপার্টমেন্টের বাসিন্দাদের কাছ থেকেও স্বপ্নার বোপোরোয়া ও উৎশৃঙ্খল জীবন-যাপনের তথ্য পাওয়া যায়, পারিবারিক সুত্রে জানা যায়, সংবাদ পাঠিকা শারমিন স্বপ্নার গ্রামের বাড়ি জামালপুর জেলার বকশিগঞ্জ উপজেলায় নিলক্ষিয়া গ্রামে তার বাবার নাম শারাফ উদ্দিন ও মায়ের নাম রেহানা শারাফ, এ দম্পত্তির ৩ বোন এক ভাইয়ের মধ্যে শারমিন স্বপ্না দ্বিতীয়। প্রতারণার বিষয়ে জানতে একাধিকবার ফোন করা হলেও স্বপ্না প্রতিবেদকের ফোন ধরেননি।

Exchange Rate


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

বাংলাদেশে করোনা ভাইরাস

সর্বমোট

আক্রান্ত
৫৪৫,৪২৪
সুস্থ
৪৯৫,৪৯৮
মৃত্যু
৮,৩৯৫
সূত্র: আইইডিসিআর

সর্বশেষ

আক্রান্ত
৪৭০
সুস্থ
৭৪৩
মৃত্যু
১১
স্পন্সর: একতা হোস্ট

Categories

নামাজের সময়সূচী

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৫:১২
  • ১২:১৫
  • ১৬:২১
  • ১৮:০৩
  • ১৯:১৭
  • ৬:২৪