বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর ২০২২, ০৭:২১ পূর্বাহ্ন
বিশেষ ঘোষণাঃ
• করোনাভাইরাস প্রতিরোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন, টিকা নিন। • গুজব নয়, সঠিক সংবাদ জানুন। • দেশের কিছু জেলা, উপজেলা, গুরুত্বপূর্ণ স্থান এবং বিশ্বের কয়েকটি দেশের গুরুত্বপূর্ণ শহরে (খালি থাকা সাপেক্ষে) প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। • আপনি কি কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে 'ফিল্ম ও মিডিয়া, গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা' বিষয়ে পড়ছেন? বাংলাদেশ প্রতিবেদন আপনাকে দিচ্ছে 'ইন্টার্নশিপ'-এর সুযোগ। • আপনিও হতে পারেন সাংবাদিক! চলতি পথে নানা অসঙ্গতি, দুর্নীতি, কারো সফলতা বা যেকোনো ভিন্নধর্মী খবর (ছবি অথবা ভিডিও) পাঠাতে পারেন। • হটলাইনঃ +৮৮০ ১৯ ০৯ ৮৬ ২৬ ১৬ (হোয়াটসঅ্যাপ), • ই-মেইলঃ protibedonbd@gmail.com • গুগল, ফেসবুক ও ইউটিউবে আমাদের পেতে Bangladesh Protibedon লিখে সার্চ দিন।

কাপাসিয়ায় ছয় মাসের শিশুর গায়ে এসিড: মূল আসামি গ্রেফতার

গাজীপুর প্রতিনিধি
প্রকাশকালঃ বুধবার, ১৩ জানুয়ারি, ২০২১

ছয় মাসের কন্যা শিশুর স্পর্শকাতর স্থানে ও কানে এসিড মারার অভিযোগে প্রতিবেশী চাচি শামসুন্নাহার’কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গাজীপুরের কাপাসিয়ার বরহর গ্রামের ছয় মাস বয়সী কন্যাশিশুকে এসিড মারার ঘটনায় থানায় অভিযোগ করেন শিশুর পরিবার।

উপজেলার রায়েদ ইউনিয়নের বড়হর গ্রামে ইমরানের শিশু কন্যার সাথে অমানবিক ঘটনাটি ঘটে।

অনুসন্ধানে জানা গেছে, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে প্রতিবেশী চাচি শামসুন্নাহার শিশু কন্যার যৌনাঙ্গ ও কানে এসিড ঢেলে দেয়। পরে শিশুটির পিতা ইমরান হোসেন বাদী হয়ে ১২ জানুয়ারি মঙ্গলবার কাপাসিয়া থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।

ভুক্তভোগী শিশুটির পরিবার জানায়, গত সাত জানুয়ারি শুক্রবার বিকেলে তাদের বাড়ির উঠানে ইমরানের মা এবং চাচি শিশু মেয়েটিকে কুলে নিয়ে রোদে বসে ছিলো। কিছুক্ষণ পর তাদের প্রতিবেশি সামসুন্নাহার এসে শিশুটিকে দাদির কাছ থেকে কোলে নেয়।

এদিকে শিশুটির মা বাড়ির কাজে কিছুটা ব্যস্ত হয়ে পড়ে। একপর্যায়ে সুযোগবুঝে প্রতিবেশি সামসুন্নাহার শিশুটির কানে এবং যৌনাঙ্গে এসিড ঢেলে দেয়। পরে শিশুটি হঠাৎ কান্নাকাটি শুরু করে।

মা দাদীসহ পরিবারের অন্য সদস্যরা শিশুটির কান্নার আওয়াজ শুনে এগিয়ে এসে দেখেন কান এবং পড়নের হাফ প্যান্ট থেকে ধোয়া বের হচ্ছে। এ সময় শামসুন্নাহারের চেহারা মলিন বর্ণের হয়ে যায় বলে জানান শিশুর বাবা ইমরান।

পরে শিশুটিকে পরিবারের সদস্যরা স্থানীয় একটি হাসপাতাল এবং উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরতরা ঢাকার বারডেম হাসপাতালে পাঠায়।

এলাকাবাসী বলেন, আমরা প্রশাসনের মাধ্যমে আসল অপরাধী দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাচ্ছি। পুলিশ বিষয়টি ভালো ভাবে যাচাই বা তদন্ত করে মূল অপরাধীকে আইনের আওতায় এনে দ্রুত যেন দৃষ্টান্তমূলক বিচারের ব্যবস্থা করেন।

কাপাসিয়া থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আলম চাঁদ জানান, এবিষয়ে সকালে শিশুটির পিতা একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করেছেন। ঘটনা তদন্তকরে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এবং ইতিমধ্যে অভিযুক্ত শামসুন্নাহার কে গ্রেফতার করা হয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ