মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০১:৫৬ পূর্বাহ্ন
বিশেষ ঘোষণাঃ
• করোনাভাইরাস প্রতিরোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন, টিকা নিন। • গুজব নয়, সঠিক সংবাদ জানুন। • দেশের কিছু জেলা, উপজেলা, গুরুত্বপূর্ণ স্থান এবং বিশ্বের কয়েকটি দেশের গুরুত্বপূর্ণ শহরে (খালি থাকা সাপেক্ষে) প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। • আপনি কি কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে 'ফিল্ম ও মিডিয়া, গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা' বিষয়ে পড়ছেন? বাংলাদেশ প্রতিবেদন আপনাকে দিচ্ছে 'ইন্টার্নশিপ'-এর সুযোগ। • আপনিও হতে পারেন সাংবাদিক! চলতি পথে নানা অসঙ্গতি, দুর্নীতি, কারো সফলতা বা যেকোনো ভিন্নধর্মী খবর (ছবি অথবা ভিডিও) পাঠাতে পারেন। • হটলাইনঃ +৮৮০ ১৯ ০৯ ৮৬ ২৬ ১৬ (হোয়াটসঅ্যাপ), • ই-মেইলঃ protibedonbd@gmail.com • গুগল, ফেসবুক ও ইউটিউবে আমাদের পেতে Bangladesh Protibedon লিখে সার্চ দিন।

চরফ্যাশনে মামলায় জামিনে থেকেও ৫ম শ্রেণীর ছাত্রীকে ধর্ষণ!

চরফ্যাশন (ভোলা) প্রতিনিধি
প্রকাশকালঃ রবিবার, ৮ নভেম্বর, ২০২০

ধর্ষণ মামলায় জামিনে থেকেও আবারোও ধর্ষনের অভিযোগ উঠেছে বিদেশ ফেরত চরফ্যাশনের দেলোয়ারের বিরুদ্ধে। উপজেলার নুরাবাদ ইউনিয়নের জলিল মাঝির ছেলে দেলোয়ার হোসেন (৩০) এর বিরুদ্ধে পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্রী (১৩) কে জোরপূর্বক ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে।

ভূক্তভোগী ওই ছাত্রি অভিযোগ করে বলেন, বৃহস্পতিবার (৫ নভেম্বর) সকাল ১০টায় বাড়ি সংলগ্ন পাকা সড়কের পাশে গাছের পাতা কুড়ানোর সময় জলিল মাঝির ছেলে দেলোয়ার জোরপূর্বক তার হাত ধরে টেনে হিচড়ে নিয়ে যায়। এ সময় সড়ক সংলগ্ন পরিত্যাক্ত দোকান ঘরে নিয়ে তাকে ধর্ষণ করে। ঘটনার সময় ওই ছাত্রী ডাক চিৎকার দিলে বলপূর্বক তার মুখ চেপে ধরে দেলোয়ার।

ভুক্তভোগী ওই ছাত্রী আরোও বলেন, এ সময় আমার মামাতো বোন দেখে ফেললে আমাকে সে ছেড়ে দিয়ে কৌশলে দৌঁড়ে পালিয়ে যায়। এ ঘটনা কাউকে বললে মামাতো বোনকে মারধরসহ আমাকে আবারো ধর্ষণ করবে। তবে আমি তাৎক্ষণিকভাবে আমার পরিবারসহ আমার চাচা ও নানা নানিকে বিষয়টি জানিয়েছি।

এ ঘটনার বিষয়ে এলাবাসী মুখ খুলতে রাজি না হলেও নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের এক নেতা জানান, জলিল মাঝির ছেলে দেলোয়ার মঙ্গলবার (২৩ জুন) একই এলাকার নুরাবাদ ইউনিয়ন সিমান্ত সংলগ্ন আবুবকরপুর ইউনিয়নের এক অন্ধ ভিক্ষুকের কিশোরী মেয়েকে ধর্ষণের ঘটনায় দুলারহাট থানা পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠায়।

তবে ওই মামলায় দেলোয়ার জামিনে রয়েছে বলে জানা গেছে। ধর্ষণের অভিযোগ বিষয়ে জানতে দোলোয়ার ও তার পরিবারের কাউকে খুঁজে পাওয়া যায়নি।

দেলোয়ারের বড় ভাই আনোয়ার হোসেন মুঠোফোনে জানান, এলাকায় তাদেরকে রাজনৈতিকভাবে হয়রানি করতে ধর্ষণকাণ্ডের ষড়যন্ত্র করা হয়েছে।

রবিবার (৮ নভেম্বর) সকালে দুলারহাট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোরাদ হোসেন বলেন, ঘটনা শুনেছি, ভুক্তভোগী পরিবারের কাউকে খুঁজে পাওয়া যায়নি। অভিযোগ পেলে পুলিশ যথাযথ ব্যবস্থা নিবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ